গ্রামোন্নয়নমন্ত্রক

খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ শিল্প মন্ত্রক এবং গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকের সংযুক্তিকরণ প্রধানমন্ত্রী ফরমালাইজেশন অফ মাইক্রো ফুড প্রসেসিং এন্টারপ্রাইসেস কর্মসূচির জন্য

Posted On: 08 APR 2021 12:29PM by PIB Kolkata
নয়াদিল্লী, ৮  এপ্রিল, ২০২১

 

মন্ত্রকের বিভিন্ন কর্মসূচির সংযুক্তিকরণ অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যা সরকার করতে চেষ্টা করছে যাতে সম্পূর্ণ সম্পদের ব্যবহার করা যায় এবং জনতার কাছে সর্বোচ্চ সুবিধা পৌঁছে দেওয়া যায়।

	চলতি মাইক্রো ফুড প্রসেসিং এন্টারপ্রাইসেস-এর উন্নীতকরণের জন্য আর্থিক কারিগরি এবং বাণিজ্যিক সহায়তা দেওয়ার লক্ষ্যে খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ শিল্প মন্ত্রক সারা ভারত জুড়ে শুরু করেছে ‘কেন্দ্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় প্রধানমন্ত্রী ফরমালাইজেশন অফ মাইক্রো ফুড প্রসেসিং এন্টারপ্রাইসেস (পিএমএফএমপি) কর্মসূচি’। রূপায়িত হবে ৫ বছর ধরে ২০২০-২১ থেকে ২০২৪-২৫ পর্যন্ত ১০ হাজার কোটি টাকা খরচ করে। 
	এমওএফপিআই এবং দীনদয়াল অন্তোদয় যোজনা- গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকের জাতীয় গ্রামীণ জীবিকা মিশন সম্মত হয়েছে একসঙ্গে কাজ করতে পিএমএফএমপি রূপায়ণে খাদ্য প্রক্রিয়াকরণে স্বনির্ভর গোষ্ঠীগুলিকে সাহায্য করতে। কর্মসূচির সবকটি উপাদানের মধ্যে দুটি মন্ত্রকই উপাদানগুলি নিয়ে নিবিড়ভাবে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যদের প্রাথমিক মূলধন জোগাতে। এরমধ্যে আছে কার্যকরী মূলধন এবং ছোটখাটো যন্ত্রপাতি ক্রয়, স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্য পিছু সর্বোচ্চ ৪০ হাজার টাকা প্রদান, তাদের চলতি লেনদেন এবং প্রয়োজনের ভিত্তিতে। দুই মন্ত্রকেরই সংশ্লিষ্ট দলগুলি জাতীয় স্তরে একসঙ্গে কাজ করেছে কর্মসূচির কার্যকরী কাঠামো চালু করতে নীতি-নির্দেশিকা যুগ্ম নিয়মাবলী, প্রশিক্ষণ এবং সচেতনতা অভিযান ইত্যাদিও এই উপাদানের রূপায়ণের সুবিধার জন্য।
রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে রাজ্য গ্রামীণ জীবিকা মিশন এবং এমওএফপিআই নিযুক্ত রাজ্য নোডাল সংস্থাগুলি নিবিড় সমন্বয় রেখে কর্মসূচির কাজ করছে। এরমধ্যে আছে উদ্দিষ্ট যোগ্য সুবিধাপ্রাপকদের চিহ্নিতকরণ, তাদের প্রত্যাশা এবং ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা জেনে আবেদন, ডিজিটাইজেশন, পর্যালোচনা, সুপারিশ এবং অনুমোদন দেওয়ার মাধ্যমে। 
২০২০-২১ অর্থ বছরে ১৭ হাজার ৪২৭ জন সুবিধা প্রাপকের আবেদন খুঁটিয়ে দেখা হয়েছে এবং ৫১.৮৫ কোটি টাকা প্রাথমিক মূলধন সহায়তা সুপারিশ করা হয়েছে। অন্ধ্র, অরুণাচলপ্রদেশ, অসম, ছত্তিশগড়, মহারাষ্ট্র, মিজোরাম, ওড়িশা এবং তেলেঙ্গানার মতো রাজ্যগুলি আছে সর্বাগ্রে  সুবিধাপ্রাপকদের মধ্যে ৮৩ শতাংশই এইসব রাজ্যগুলির এবং সুপারিশকৃত মোট অর্থের ৮০ শতাংশই তাদের জন্য। 
এ পর্যন্ত প্রাথমিক মূলধন হিসেবে ২৯.০১ কোটি টাকা অনুমোদন করা হয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ, ছত্তিশগড়, গোয়া, গুজরাট, হরিয়ানা, হিমাচলপ্রদেশ, কর্ণাটক, মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, মেঘালয়, ওড়িশা, রাজস্থান, সিকিম, তেলেঙ্গানা, ত্রিপুরা, উত্তরপ্রদেশের ৬ হাজার ৬৯৪টি সংস্থার ১০ হাজার ৩১৪ জন সুবিধাপ্রাপকের জন্য। রাজ্যগুলি বর্তমানে সংশ্লিষ্ট স্বনির্ভর গোষ্ঠী এবং গোষ্ঠীর সদস্যদের টাকা দিচ্ছে ক্লাস্টার লেভেল ফেডারেশনস (সিএলএফ) এবং ভিলেজ অর্গানাইজেশন্স, (ভিও)র মতো গোষ্ঠী সংস্থা নেটওয়ার্কের মাধ্যমে। 
একটি শক্তিশালী ব্যবস্থাও তৈরি করা হচ্ছে নিয়মিত তত্ত্বাবধানের জন্য। এই কর্মসূচির অধীনে গ্রামীণ খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ সংস্থাগুলি যেগুলি পরিচালনা করে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যরা এবং সহায়তা দেওয়া হয় এই কর্মসূচিতে তাদের জন্য। এই সংযুক্তিকরণের ফলে দুটি মন্ত্রকেরই শক্তি বৃদ্ধি পেয়েছে এবং নিশ্চিত এরফলে খাদ্য প্রক্রিয়াকরণের মতো গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে গ্রামীণ মহিলাদের জীবিকা ক্ষমতাপ্রাপ্ত হবে। 

CG/AP/NS


(Release ID: 1710467) Visitor Counter : 6