পরিসংখ্যানএবংকর্মসূচিরূপায়ণমন্ত্রক

এনএসএস – এর প্রতিবেদন : ভারতে সময়ের ব্যবহার – ২০১৯ (জানুয়ারি-ডিসেম্বর, ২০১৯)

Posted On: 29 SEP 2020 4:13PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

 

 

ভূমিকা : সময়ের ব্যবহার সংক্রান্ত সমীক্ষা বিভিন্ন কাজকর্মে সাধারণ মানুষের সময়ের ব্যবহারের বিন্যাসের ক্ষেত্রে এক কাঠামো প্রদান করে থাকে। এ ধরনের সমীক্ষা সাধারণ মানুষ যে সমস্ত কাজকর্ম করে থাকেন, সে সম্পর্কিত তথ্য সংগ্রহের এক গুরুত্বপূর্ণ উৎস। সেই সঙ্গে, কাজকর্ম সম্পাদনের ক্ষেত্রে সময়ের ব্যবহারের পাশাপাশি, কতটা সময় ব্যয় হচ্ছে, সে সম্পর্কিত তথ্য এ ধরনের সমীক্ষার মূল প্রতিপাদ্য। বিভিন্ন ধরনের পারিবারিক সমীক্ষা থেকে সময়ের ব্যবহার সংক্রান্ত সমীক্ষার একটি স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য হ’ল – মানুষের কর্মকান্ডের বিভিন্ন দিক সম্পর্কিত সময়ের বিন্যাস এবং সময়ের খরচ। মানুষের কর্মকান্ডের বিভিন্ন দিক তা সে মাশুলযোগ্যই হোক বা মাশুল বহির্ভূত উভয় ক্ষেত্রেই এ ধরনের তথ্য পাওয়া অন্যান্য সমীক্ষা থেকে প্রায় অসম্ভব। 

সময়ের ব্যবহার সংক্রান্ত সমীক্ষার প্রাথমিক উদ্দেশ্য হ’ল – পারিশ্রমিক-ভিত্তিক বা পারিশ্রমিক বহির্ভূত কর্মকান্ডে পুরুষ ও মহিলাদের অংশগ্রহণের মাপকাঠি নির্ধারণ। এছাড়াও, পারিশ্রমিক বহির্ভূত বিভিন্ন ক্ষেত্র এবং যত্ন বা শুশ্রুষা, স্বেচ্ছা শ্রম, গৃহস্থালীর কাজকর্ম প্রভৃতি মানুষের কর্মকান্ডে সময়ের ব্যবহার সংক্রান্ত তথ্যের গুরুত্বপূর্ণ উৎসই হ’ল এ ধরনের সমীক্ষা। এমনকি, এ ধরনের সমীক্ষা থেকে পারবারিক সদস্যদের বিভিন্ন বিষয়ে শিক্ষণ, সামাজিক যোগাযোগ, আলস্য, নিজেকে সময় দেওয়া প্রভৃতি বিষয়েও সময়ের ব্যবধান সংক্রান্ত তথ্য সমীক্ষা থেকে পাওয়া যায়।

জাতীয় পরিসংখ্যান কার্যালয় ২০১৯ – এর জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশে প্রথমবার সময়ের ব্যবহার সংক্রান্ত সমীক্ষা পরিচালনা করে। এই সমীক্ষায় পারিশ্রমিক-ভিত্তিক কর্মকান্ড, যত্ন বা শুশ্রুষা এবং পারিশ্রমিক বহির্ভূত কর্মকান্ডে মানুষের অংশগ্রহণের হার তথা সময় ব্যবহারে পুঙ্খানুপুঙ্খ বিশ্লেষণ হয়েছে। 

 

সমীক্ষার বৈশিষ্ট্য এক নজরে : 

 

১) কভারেজ বা সমীক্ষার বিস্তৃতি : গ্রামাঞ্চলের ৮২ হাজার ৮৯৭টি এবং শহরাঞ্চলের ৫৫ হাজার ৯০২টি পরিবার মিলিয়ে মোট ১ লক্ষ ৩৮ হাজার ৭৯৯টি পরিবারে এই সমীক্ষা চালানো হয়েছে। পরিবারগুলির ৬ বছর বয়সী সদস্য থেকে তার বেশি বয়সী প্রত্যেক সদস্যের কাছ থেকে সময় ব্যবহার সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। সমীক্ষায় ৬ বছর বা তার বেশি বয়সী ৪ লক্ষ ৪৭ হাজার ২৫০ জন ব্যক্তির কাছ থেকে সময় খরচের হিসেব-নিকেশ সংগ্রহ করা হয়েছে।

২) তথ্য সংগ্রহ : এই সমীক্ষায় ব্যক্তিগত সাক্ষাৎ-পদ্ধতি অনুসরণ করে সময় ব্যবহার সম্পর্কিত তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। তথ্য সংগ্রহের জন্য নির্দিষ্ট একটি দিনে ভোর ৪টে থেকে পরদিন ভোর ৪টে পর্যন্ত দীর্ঘ ২৪ ঘন্টার সময়কালকে বিবেচনায় রাখা হয়েছে। 

 

৩) সময়ের খরচের হিসেব-নিকেশ প্রকাশ : এই সমীক্ষায় সংগৃহীত যাবতীয় তথ্য বিশ্লেষণ করে সবধরনের কর্মকান্ডকে সময়-ভিত্তিক বিন্যাস এবং দৈনিক কর্মকান্ডের নিরিখে প্রাপ্ত তথ্যকে একত্রিত করে প্রকাশ করা হয়েছে। অবশ্য, ভারতে সময়ের ব্যবহার – ২০১৯ শীর্ষক প্রতিবেদনে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কর্মকান্ডে ব্যয় হওয়া সময় পৃথক পৃথক শ্লটে বিভক্ত করে তার হিসেব প্রকাশ করা হয়েছে। সেই অনুযায়ী, ৬ বছর বা তার বেশি বয়সী ব্যক্তিদের সময়ের ব্যবহারের বিভিন্ন দিক দৈনিক-ভিত্তিতে অংশগ্রহণের হার; দৈনিক-ভিত্তিতে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে গড় সময় খরচের হার; দৈনিক-ভিত্তিতে একজন ব্যক্তির গড় সময়ের ব্যবহার প্রভৃতি বিষয়কে বিবেচনায় রেখেই পুঙ্খানুপুঙ্খ বিশ্লেষণ সমীক্ষায় প্রকাশিত হয়েছে। উল্লিখিত ২৪ ঘন্টার (ভোর ৪টে থেকে পরদিন ভোর ৪টে পর্যন্ত) মধ্যে মোট ১ হাজার ৪৪০ মিনিট সময় একজন ব্যক্তি কিভাবে বিভিন্ন কর্মকান্ডে খরচ করছেন, তার পৃথক ও স্বতন্ত্র বিশ্লেষণ ও বিবরণ সমীক্ষায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। অবশ্য, প্রত্যেক ব্যক্তির সময় খরচের বিবরণ এই সমীক্ষায় পৃথকভাবে প্রকাশিত হয়নি বরং ব্যক্তি-বিশেষের সময় খরচের গড় হারকে একত্রিত করে তার বিশ্লেষণ প্রকাশ হয়েছে।

 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1660097) Visitor Counter : 170