প্রতিরক্ষামন্ত্রক

সেনাবাহিনীর আধুনিকীকরণ

Posted On: 16 SEP 2020 5:04PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০

 


ডিফেন্স সার্ভিসেস এস্টিমেটস্ কর্মসূচির আওতায় সেনাবাহিনীর আধুনিকীকরণের জন্য ২০১৫-১৬’তে ৬২ হাজার ২৩৫ কোটি ৫৪ লক্ষ টাকা, ২০১৮-১৯  এ ৭৫ হাজার ৮৯২ কোটি ৮৫ লক্ষ টাকা, ২০১৯-২০’তে ৯১ হাজার ১২৮ কোটি ৭৪ লক্ষ টাকা এবং ২০২০-২১ এর ৩১শে জুলাই পর্যন্ত ৩১ হাজার ৭৪৭ কোটি ৬ লক্ষ টাকা খরচ করা হয়েছে। ২০০১ সালের মে মাসে প্রতিরক্ষা শিল্প ক্ষেত্রে ভারতীয় বেসরকারি ক্ষেত্রের জন্য ১০০ শতাংশ পর্যন্ত বিনিয়োগের অনুমতি দেওয়া হয়। এর আগে, এই ক্ষেত্রটি কেবল সরকারি বিনিয়োগের জন্যই সংরক্ষিত ছিল। সে সময়ে প্রতিরক্ষা খাতে ২৬ শতাংশ পর্যন্ত প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। পরবর্তী সময়ে শিল্প প্রসার ও অভ্যন্তরীণ বাণিজ্য দপ্তর ২০১৬’র এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে সরকারি ৪৯ শতাংশ পর্যন্ত প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগের অনুমতি দেয়। অবশ্য, ৪৯ শতাংশের বেশি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সরকারি নিয়মনীতি অনুযায়ী লগ্নির অনুমতি রয়েছে। প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রের আধুনিকীকরণ এবং নতুন প্রযুক্তি প্রয়োগের লক্ষ্যেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।


২০১৭-১৮ থেকে ২০১৯-২০ পর্যন্ত এবং চলতি অর্থবর্ষের জুলাই মাস পর্যন্ত দেশী ও বিদেশি বিক্রেতা সংস্থার সঙ্গে ১৮৩টি মূলধন সংগ্রহ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ কর্মসূচির প্রসারে সরকার একাধিক উদ্যোগ নিয়েছে। এই উদ্যোগগুলির ফলে একদিকে যেমন প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগের পরিমাণ বেড়েছে, অন্যদিকে তেমনই দেশীয় অতিক্ষুদ্র, ছোট ও মাঝারি সংস্থাগুলির অংশগ্রহণের সুযোগও বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিকে আত্মনির্ভর ভারত মিশনের আওতায় প্রতিরক্ষা মন্ত্রক ১০১টি প্রতিরক্ষা সরঞ্জামের তালিকা তৈরি করেছে। যেগুলি আমদানির ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে। এই সিদ্ধান্তের ফলে দেশীয় প্রতিরক্ষা শিল্প ক্ষেত্রগুলি লাভবান হবে বলেও মনে করা হচ্ছে।


লোকসভায় আজ এক প্রশ্নের লিখিত জবাবে এই তথ্য দেন প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী শ্রী শ্রীপাদ নায়েক।

 



CG/BD/SB



(Release ID: 1655334) Visitor Counter : 155


Read this release in: English , Urdu , Assamese , Tamil