বিদ্যুৎমন্ত্রক

গ্রীষ্মকালে বিদ্যুতের অতিরিক্ত চাহিদা মেটাতে সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ

Posted On: 02 APR 2024 7:43PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ০২ এপ্রিল, ২০২৪ 

 

গ্রীষ্মকালে বিদ্যুতের চাহিদা পূরণে সরকার প্রয়োজনীয় সবধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ এবং নতুন ও পুনর্নবীকরণযোগ্য জ্বালানী মন্ত্রী শ্রী আর কে সিং এর জন্য একাধিক বৈঠক করেন। মার্চ মাসের তৃতীয় সপ্তাহে আয়োজিত এক বৈঠকে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর জন্য আগে থেকেই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। গ্রীষ্মের মরশুমে এমন কোনও পরিস্থিতি যাতে না হয়, যেখানে একটি রাজ্যে বিদ্যুতের ঘাটতি দেখা দেবে অথচ অন্য কোনও রাজ্যে প্রয়োজনের তুলনায় অতিরিক্ত বিদ্যুৎ উৎপাদিত হবে। 
মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে শ্রী সিং দেশের প্রতিটি তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদন ক্ষমতার পর্যালোচনা করেন। ক্ষেত্র বিশেষে কোনও কোনও কেন্দ্রের উৎপাদন হ্রাস করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে। এছাড়াও, এই মুহূর্তে উৎপাদন হচ্ছে না, এ ধরনের ইউনিটগুলির বিষয়েও বৈঠকে আলোচনা হয়। দেশে মোট ৫.২ গিগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে পারে, এরকম বেশ কয়েকটি ইউনিট  এখন বন্ধ রয়েছে।
মন্ত্রক বিভিন্ন বিদ্যুৎ কেন্দ্রে পর্যায়ক্রমে রক্ষণা-বেক্ষণের কাজ চালাতে বলেছে। এপ্রিল মাসে যেসব ইউনিটগুলিতে রক্ষণা-বেক্ষণের কাজ চলবে, সেগুলির মোট উৎপাদন ক্ষমতা ১.৭ গিগাওয়াট। জুন মাসে যে কেন্দ্রগুলির রক্ষণা-বেক্ষণ করা হবে, সেগুলির উৎপাদন ক্ষমতা ৬ থেকে ৯ গিওগাওয়াট। তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলিতে বর্ষাকালে রক্ষণা-বেক্ষণ করা হবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়াও, কয়লা, জল, পারমাণবিক, বায়ু ও সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলির উৎপাদন ক্ষমতা বৃদ্ধির পরিকল্পনা করা হয়েছে। 
নিয়মানুযায়ী, কোনও তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে অতিরিক্ত বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হলে, ঐ বিদ্যুৎ অন্যত্র সরবরাহ করতে হবে। এর জন্য প্রয়োজনীয় নজরদারির উপরও গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন বিদ্যুৎ বন্টন সংস্থাগুলির বিষয়ে একটি পর্যালোচনা করেছে জাতীয় তাপবিদ্যুৎ কর্পোরেশন বা এনটিপিসি। কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ মন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রতিটি কয়লা-ভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে ন্যূনতম ৫৫ শতাংশ বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে হবে। এছাড়াও, গ্যাস-ভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদন ক্ষমতার বিষয়ে পর্যালোচনার নির্দেশ দেন তিনি। বেশ কিছু বিদ্যুৎ কেন্দ্রে উৎপাদনের জন্য কয়লা আমদানী করতে হয়। এই কেন্দ্রগুলির জন্য বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা প্রদানের সময়সীমা ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। বৈঠকে কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ সচিব শ্রী পঙ্কর আগরওয়াল সহ সিইএ, এনটিপিসি, গ্রিড ইন্ডিয়া, বিভিন্ন উৎপাদক সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। 

 

PG/CB/SB



(Release ID: 2017301) Visitor Counter : 41