আবাসনএবংশহরাঞ্চলেরদারিদ্র্যদূরীকরণমন্ত্রক

পিএম স্বনিধি প্রকল্প

Posted On: 07 AUG 2023 1:00PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ৭ অগাস্ট


কেন্দ্রীয় আবাসন ও নগর বিষয়ক মন্ত্রক (এমওএইচইউএ) ২০২০-র ১ লা জুন প্রধানমন্ত্রী স্ট্রিট ভেন্ডার্স আত্মনির্ভর নিধি (পিএমস্বনিধি) প্রকল্প চালু করেছে। এর উদ্দেশ্য হল, কোভিড ১৯ অতিমারিতে দারুণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত স্ট্রিট ভেন্ডাররা যাতে তাদের ব্যবসা পুনরায় শুরু করতে পারেন, সেজন্য তাদের ব্যবসার পুঁজি জোগাতে বন্ধকবিহীন ঋণ প্রদানের ব্যবস্থা করা। এই প্রকল্পের নিম্নলিখিত উদ্দেশ্য:
১) ১ বছরের জন্য ব্যবসা শুরুর পুঁজি হিসেবে বন্ধকবিহীন ১০ হাজার টাকা এরপর গৃহীত ঋণ পরিশোধের ভিত্তিতে বর্ধিত ঋণ হিসেবে দ্বিতীয় পর্বে ২০ হাজার টাকা এবং তৃতীয় পর্বে ৫০ হাজার টাকা ঋণ প্রদানের সংস্থান রাখা।
২) বার্ষিক ৭ শতাংশ হারে সুদের ওপর ভর্তুকি দিয়ে নিয়মিত ঋণ পরিশোধে উৎসাহ প্রদান এবং
৩) ডিজিটাল বিনিময়ের পুরস্কারস্বরূপ বার্ষিক ১২ শো টাকা পর্যন্ত নগদ ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা
খ) প্রধানমন্ত্রী স্বনিধি প্রকল্পে প্রাথমিক পর্যায়ে ব্যবসা শুরুর পুঁজি হিসেবে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ঋণ দেওয়ার সংস্থান রাখা হয়। এরপর, বর্ধিত প্রয়োজনের দিকে তাকিয়ে ২০২১ সালের ৯ এপ্রিল দ্বিতীয় পর্যায়ে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত ঋণ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। পরে, তৃতীয় পর্যায়ে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ঋণ দেওয়ার সংস্থান চালু করা হয় ২০২২ সালের পয়লা জুন। 
গ) এবং ঘ) মন্ত্রক এপর্যন্ত এরকম কোনো প্রস্তাব পায়নি। যদিও মন্ত্রক পুনর্বিবেচনার ভিত্তিতে ২০২৩ সালের পয়লা ফেব্রুয়ারী নগদ ফিরিয়ে দেওয়ার প্রকল্প চালু করে। এর মাধ্যমে প্রত্যেকটি ডিজিটাল বিনিময়ে ১ টাকা করে মাসে সর্বোচ্চ ১০০ টাকা এবং বছরে সর্বোচ্চ ১২ শো টাকা পর্যন্ত ফিরিয়ে দেওয়ার সংস্থান রাখা হয়। 
ঙ) এবং চ) ২০২৩-এর ২রা অগাস্ট পর্যন্ত পিএমস্বনিধি প্রকল্পে অন্ধ্রপ্রদেশে মোট ২ লক্ষ ৬২ হাজার ৮১১ টি ঋণ প্রদান করা হয়েছে। অন্ধ্রপ্রদেশে ২০২২-২৩ অর্থ বছরে ৪৯ হাজার ৫৩৪ টি এবং ২০২৩-২৪-এ(২রা অগাস্ট ২০২৩ পর্যন্ত) ১২ হাজার ৯৭ টি ঋণ প্রদান করা হয়। 
রাজ্য/পৌরসংস্থাগুলির ওপর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে যোগ্য স্ট্রিট ভেন্ডারদের চিহ্নিত করা এবং এই প্রকল্পে নতুন আবেদনের পথ প্রশস্ত করা। সুবিধাভোগীদের সংখ্যা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে মন্ত্রক যেসব উদ্যোগ নিয়েছে, তারমধ্যে রয়েছে রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল/পৌরসংস্থা এবং ঋণদানকারী সংস্থাগুলির সঙ্গে নিয়মিত পর্যালোচনা বৈঠক করা। এছাড়াও রয়েছে রেডিও জিঙ্গলের মাধ্যমে সচেতনতা অভিযানের সম্প্রচারের পাশাপাশি টেলিভিশন ও সংবাদপত্রে সময়ে সময়ে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে এর প্রচারাভিযান চালানো। রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে তথ্য প্রদানের পাশাপাশি আঞ্চলিক ভাষায় যোগাযোগের জন্য সহায়ক সরঞ্জাম প্রদান করা-যাতে স্ট্রিট ভেন্ডারদের কাছে আরও বেশি করে পৌঁছোনো যায় এবং তাঁরা এই প্রকল্পের সুবিধাগুলি পেতে পারেন। 
কেন্দ্রীয় আবাসন নগর বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী শ্রী কৌশল কিশোর রাজ্যসভায় আজ লিখিত উত্তরে এই তথ্য জানিয়েছেন। 

AC/AB/CS



(Release ID: 1946386) Visitor Counter : 167