ভূ-বিজ্ঞানমন্ত্রক

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ডাঃ জিতেন্দ্র সিং বলেছেন যথাযথভাবে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার পূর্বাভাস দেওয়ার জন্য দেশ জুড়ে ২০২৫ সালের মধ্যে ডপলার আবহাওয়া র‍্যাডার ব্যবস্থাপনা কার্যকর করা হবে

Posted On: 15 JAN 2023 7:31PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ১৫ জানুয়ারি, ২০২৩

 

কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান, প্রযুক্তি ও ভূ-বিজ্ঞান মন্ত্রকের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত এবং প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর, কর্মী, গণঅভিযোগ, পেনশন, পারমাণবিক শক্তি ও মহাকাশ দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী ডাঃ জিতেন্দ্র সিং বলেছেন, যথাযথভাবে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার পূর্বাভাস দেওয়ার জন্য দেশ জুড়ে ২০২৫ সালের মধ্যে ডপলার আবহাওয়া র‍্যাডার ব্যবস্থাপনা কার্যকর করা হবে। নতুন দিল্লিতে রবিবার ভারতীয় আবহাওয়া দপ্তরের ১৪৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে মূল ভাষণ দেওয়ার সময় মন্ত্রী জানান, প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন সরকার দেশ জুড়ে র‍্যাডার ব্যবস্থাপনার মানোন্নয়ন ঘটাতে একগুচ্ছ পদক্ষেপ নিয়েছে। ২০১৩ সালে সারা দেশে মাত্র ১৫টি র‍্যাডার নেটওয়ার্ক ছিল। ২০২৩-এ তা বৃদ্ধি পেয়ে ৩৭-এ পৌঁছেছে। আগামী ২-৩ বছরের মধ্যে আরও ২৫টি র‍্যাডার নেটওয়ার্ক কার্যকর করা হবে।

অনুষ্ঠানে উত্তরাখন্ডের মুখ্যমন্ত্রী শ্রী পুষ্কর সিং ধামী, হিমাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শ্রী সুখবিন্দর সিং, জম্মু ও কাশ্মীরের উপ-রাজ্যপাল শ্রী মনোজ সিনহা এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব শ্রী অজয় কুমার ভাল্লা উপস্থিত ছিলেন। ডাঃ জিতেন্দ্র সিং হিমাচল প্রদেশ ও উত্তরাখন্ডের মুখ্যমন্ত্রী এবং জম্মু ও কাশ্মীরের উপ-রাজ্যপালকে জানান, ভারতীয় আবহাওয়া দপ্তর লাদাখ, উত্তরাখন্ড, হিমাচল প্রদেশ এবং জম্মু ও কাশ্মীরে ডপলার আবহাওয়া র‍্যাডার ব্যবস্থাপনাকে আরও শক্তিশালী করে তোলার উদ্যোগ নিয়েছে। এর ফলে, আগামী দিনে সংশ্লিষ্ট অঞ্চলে চরম দুর্যোগপূর্ণ আবহওয়া সংক্রান্ত যে কোনও পূর্বাভাস আরও সঠিকভাবে দেওয়া সম্ভব হবে। আবহাওয়া দপ্তর ইতোমধ্যেই ২০২৫ সালের মধ্যে জেলাস্তরে ৬৬০টি কৃষি-ভিত্তিক আবহাওয়া দপ্তর গড়ে তোলার পরিকল্পনা করেছে। এছাড়াও, এই সময়ের মধ্যে ৭ হাজারটি ব্লকে আবহাওয়া সংক্রান্ত পূর্বাভাস কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে। বর্তমানে দেশের ৩ হাজার ১০০টি ব্লকে এ ধরনের কেন্দ্র রয়েছে। মন্ত্রী আরও জানান, গত ৫ বছরে আবহাওয়ার পূর্বাভাস সংক্রান্ত ব্যবস্থাপনায় সংস্কার সাধনের ফলে বর্তমানে আরও নিখুঁতভাবে পূর্বাভাস দেওয়া সম্ভব হচ্ছে। আবহাওয়া দপ্তর ইনস্যাট থ্রি-ডি এবং থ্রি-ডিআর কৃত্রিম উপগ্রহ মারফৎ বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করার ফলে এই কাজে সুবিধা হয়েছে।

২০২১ সালে হড়পা বান সংক্রান্ত পূর্বাভাস এবং ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা প্রদানের জন্য ওয়াটার শেড প্রকল্পের সূচনা করা হয়। ২০২১ সালে এ ধরনের ৩০ হাজার কেন্দ্র গড়ে তোলা হয়। এক বছরের মধ্যে সেই সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে ১ লক্ষে পৌঁছয়। বর্তমানে এই ব্যবস্থাপনার সুবিধা নেপাল, ভুটান, বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা দৈনিক ৬ ঘন্টা করে পেয়ে থাকে। অনুষ্ঠানে ডাঃ সিং জম্মু ও কাশ্মীর, উত্তরাখন্ড ও হিমাচল প্রদেশে ৪টি ডপলার আবহাওয়া র‍্যাডার ব্যবস্থাপনার সূচনা করেন। এছাড়াও, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে কৃষি সংক্রান্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাস দেওয়ার জন্য ২০০টি কেন্দ্র তিনি জাতির উদ্দেশে উৎসর্গ করেন।

ভূবিজ্ঞান মন্ত্রকের সচিব ডঃ রামচন্দ্রণ জানান, ভারতীয় আবহাওয়া দপ্তর বর্তমানে বিদ্যুৎ, রেল, পর্যটন, স্বাস্থ্য, পরিবেশ সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের জন্য পৃথক পৃথক পরিষেবা প্রদান করছে। আবহাওয়া দপ্তরের মহানির্দেশক ডঃ মৃত্যুঞ্জয় মহাপাত্র জানিয়েছেন, পশ্চিম হিমালয়ের পার্বত্য অঞ্চল এবং দিল্লি, মুম্বাই ও চেন্নাইয়ের মতো শহরে ডপলার র‍্যাডার বসানো হচ্ছে। আগামী ৫ বছরে দেশের অন্যান্য শহর ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলের এই র‍্যাডার আরও বসানো হবে।

১৮৬৪ সালে কলকাতায় ক্রান্তীয় ঘূর্ণিঝড়, ১৮৬৬ এবং ১৮৭১ সালে খরার ফলে দুর্ভিক্ষের কারণে দেশে আবহাওয়া সংক্রান্ত পূর্বাভাসের একটি ব্যবস্থাপনা গড়ে তোলার প্রয়োজনীয়তা অনুভূত হয়। এর প্রেক্ষিতে ১৮৭৫ সালের ১৫ জানুয়ারি ভারতীয় আবহাওয়া দপ্তর প্রতিষ্ঠা করা হয়। গত ১৪৮ বছর ধরে দেশবাসীর কল্যাণে এবং দেশের মানুষের নিরাপত্তার জন্য এই দপ্তর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে, যা দেশের আর্থিক বিকাশের সহায়ক।

 

PG/CB/SB



(Release ID: 1891839) Visitor Counter : 192