তথ্যওসম্প্রচারমন্ত্রক
azadi ka amrit mahotsav

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ সিং ঠাকুর দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম ফিল্ম বাজারের উদ্বোধন করেছেন

Posted On: 21 NOV 2022 5:11PM by PIB Kolkata

গোয়া, ২১ নভেম্বর ২০২২

 

ফিল্ম বাজারের উদ্বোধন করে ভাষণে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার, যুব বিষয়ক ও ক্রীড়ামন্ত্রী শ্রী অনুরাগ সিং ঠাকুর বলেন, বিশ্বে ভারত হল অন্যতম বৃহৎ চলচ্চিত্র নির্মাণকারী দেশ। ভারতের আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব (আইএফএফআই) এশিয়ার বৃহত্তম চলচ্চিত্র উৎসব। ফলে, প্রযোজকরা এখানে এসে ভারতীয় চলচ্চিত্র নির্মাতাদের সঙ্গে যুক্ত হন এবং সহযোগিতা গড়ে তোলেন। এই কারণে ফিল্ম বাজারের উদ্যোগ গ্রহণের ক্ষেত্রে আইএফএফআই হল যথার্থ প্ল্যাটফর্ম।

চলচ্চিত্র শিল্পে ভারত যে বৃহৎ বাজার হয়ে উঠেছে, এই বিষয়ে তাঁর দৃষ্টিভঙ্গি ভাগ করে নিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন আইএফএফআই-এ চলচ্চিত্র নির্মাণের ক্ষেত্রে সহ-প্রযোজক এবং সহযোগী খুঁজে পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রভূত সুযোগ রয়েছে। তিনি বলেন, “আমরা এমন এক বৃহৎ বাজার হয়ে উঠতে চাইছি যেখানে ছবি কেনা-বেচা করা যাবে।”

এ বছরের আইএফএফআই-এ বিভিন্ন নতুন বিষয় সূচনা করায় এনএফডিসি, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক এবং স্টিয়ারিং কমিটির প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানান তিনি। আইএফএফআই-এ আগামীদিনে আরও বড় এবং ভালো করে তোলাবার জন্য তিনি নতুন ধারণা ও মতামত আহ্বান করেন।

ফিল্ম বাজার, এটি দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম চলচ্চিত্র বাজার। গোয়ায় আজ এর উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শ্রী অনুরাগ সিং ঠাকুর। ৫৩তম ভারতীয় আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের পাশাপাশি এই বাজারের আয়োজন করা হয়েছে। এতে দক্ষিণ এশিয়া এবং আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র গোষ্ঠীর মধ্যে সৃষ্টিশীলতা এবং আর্থিক সহযোগকে প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডঃ এল মুরুগন, তথ্য ও সম্প্রচার সচিব শ্রী অপূর্ব চন্দ্র সহ এনএফডিসি-র প্রতিনিধিবৃন্দ এবং চলচ্চিত্র শিল্পের সঙ্গে যুক্ত অন্যান্য ব্যক্তিত্ব উপস্থিত ছিলেন।

ফিল্ম বাজার :

ন্যাশনাল ফিল্ম ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন (এনএফডিসি) এই বাজারের আয়োজন করেছে। ২০০৭ সালে শুরু হওয়া এই বাজার দক্ষিণ এশীয় আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র বাজার হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে। প্রত্যেকবারেই জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক স্তরে অংশগ্রহণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। বছরের পর বছর ধরে ‘লাঞ্চ বক্স’, ‘মার্গারিটা উইথ আ স্ট্র’, ‘চৌথি কুট’, ‘কিসা’, ‘শিপ অফ থেসিয়াস’, ‘তিতলি’, ‘কোর্ট’, ‘আনহে ঘোড়ে দা দান’, ‘মিস লাভলি’, ‘দম লাগাকে হেইসা’, ‘লায়ার্স ডাইস’ এবং ‘তিথি’-র মতো চলচ্চিত্র এই বাজারে এক বা একাধিক অনুষ্ঠানে জায়গা করে নিয়েছে।

পাঁচদিনের সময়কালে ফিল্ম বাজার সারা বিশ্বের চলচ্চিত্রের ক্রেতা ও বিক্রেতাদের এক সমন্বয় স্থল হিসেবে কাজ করবে। এর উদ্দেশ্য হল দক্ষিণ এশিয়ার বিষয় এবং প্রতিভাকে চলচ্চিত্র নির্মাণ, প্রযোজনা এবং বিতরণের মাধ্যমে তুলে ধরা, আবিষ্কার করা এবং তাঁদেরকে সমর্থন যোগানো। দক্ষিণ এশীয় এলাকায় বিশ্ব চলচ্চিত্র ক্রয়ের সুযোগকেও এই বাজার প্রশস্ত করে।

 
PG/AB/DM/



(Release ID: 1878081) Visitor Counter : 55