শিল্পওবাণিজ্যমন্ত্রক

কৃষিজ পণ্য রপ্তানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (এপিইডিএ) ৩৬তম প্রতিষ্ঠা দিবস

Posted On: 13 FEB 2022 3:33PM by PIB Kolkata
নতুন দিল্লি,  ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
 
কৃষিজ পণ্য রপ্তানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (এপিইডিএ) আজ তার ৩৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করছে। কৃষিজ পণ্য রপ্তানির সঙ্গে যুক্ত এই সংস্থাটি সরকারকে এধরণের পণ্যের রপ্তানি বাড়াতে সাহায্য করে। ১৯৮৬-তে সংস্থাটির যখন প্রতিষ্ঠা হয়, তখন রপ্তানির পরিমাণ ছিল ০.৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ২০২০-২১-এ রপ্তানির পরিমাণ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০.৬৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। রপ্তানির পরিমাণ বৃদ্ধির পাশাপাশি রপ্তানি হওয়া দেশের সংখ্যাও বেড়ে ২০৫ হয়েছে। 
 
২০২০-২১-এ মোট রপ্তানির মধ্যে এপিইডিএ-র রপ্তানির শেয়ার ছিল ৪৯ শতাংশ বা ২০.৬৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ২০২১-২২ অর্থবর্ষে এপিইডিএ-কে ২৩.৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের রপ্তানির লক্ষ্য স্থির করে দেওয়া হয়। এরমধ্যে, গত জানুয়ারি পর্যন্ত রপ্তানির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৭.২০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার, যা ধার্য লক্ষ্যমাত্রার ৭০ শতাংশের বেশি। রপ্তানিতে বাকি লক্ষ্য পূরণ নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে অর্জন করা সম্ভব হবে বলে মনে করা হচ্ছে। 
 
কৃষিজ পণ্যের রপ্তানি এক নতুন উচ্চতায় পৌঁছে দিতে এপিইডিএ সহজে ব্যবসা বাণিজ্যের লক্ষ্যে তথ্য প্রযুক্তির প্রয়োগ বাড়াচ্ছে। ইতিমধ্যেই কৃষিজ পণ্য রপ্তানির সঙ্গে যুক্ত এই সংস্থাটি একাধিক তথ্য প্রযুক্তি ভিত্তিক উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এরমধ্যে রয়েছে কাগজ বিহীন কাজকর্ম পরিচালনা, ডিজিটাল সিগনেচার, বৈদ্যুতিন পদ্ধতিতে মাশুল প্রদান, মোবাইল অ্যাপ, অনলাইন পণ্য পরিষেবা প্রভৃতি। প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর ভোকাল ফর লোকাল উদ্যোগকে বিবেচনায় রেখে এবং আত্মনির্ভর ভারত গঠনের লক্ষ্যে এপিইডিএ স্থানীয় পণ্যের রপ্তানিতে অগ্রাধিকার দিচ্ছে। সেই অনুসারে জিআই ট্যাগ বা স্বতন্ত্র ভৌগলিক পরিচিতি সম্পন্ন কৃষিজ পণ্যের রপ্তানি বাড়ানোর ওপর গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত জিআই স্বীকৃতি সম্পন্ন পণ্যের সংখ্যা ৪১৭। এরমধ্যে ১৫০টি কৃষি ও খাবারজাত পণ্য। এই ১৫০টি জিআই ট্যাগ সম্বলিত পণ্যের মধ্যে ১০০টির বেশি পণ্য এপিইডিএ-র পক্ষ থেকে রপ্তানি করা হয়। 
 
২০২০-২১ এবং চলতি অর্থবর্ষে আরও কয়েকটি জিআই ট্যাগ সম্বলিত পণ্য ভারত থেকে রপ্তানি করা হয়েছে। এরমধ্যে রয়েছে ড্রাগন ফল, কাঁঠাল, জামুন, বার্মিজ আঙুর, মুড়ি প্রভৃতি। 
 
ভারত সরকারের সঙ্গে সহযোগিতায় এপিইডিএ রাজ্য সরকারগুলির মধ্যে সমন্বয় আরও বাড়ানোর ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে যাতে রপ্তানি প্রসারে কৃষকদের সঙ্গে বাজার যোগসূত্র আরও নিবিড় করা যায়। এরফলে, স্থানীয় কৃষিজ পণ্যের বিপণন যেমন বাড়বে, তেমনই কৃষকদের অতিরিক্ত আয়ের সংস্থান হবে। 
 
এপিইডিএ একটি মার্কেট ইন্টেলিজেন্স সেল গঠন করেছে। এই সেল ই-মার্কেট সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য প্রচারের কাজে যুক্ত রয়েছে। এছাড়াও এপিইডিএ-র পক্ষ থেকে একটি ফার্মার কন্ট্যাক্ট পোর্টাল চালু করা হয়েছে। এর সাহায্যে কৃষক উৎপাদক সংগঠন বা কৃষক উৎপাদক সংস্থা, সমবায় সমিতিগুলির সঙ্গে রপ্তানিকারীরা সরাসরি যোগাযোগ করতে পারছেন। এখনও পর্যন্ত এই পোর্টালে প্রায় ৩ হাজার ৩০০টি কৃষক উৎপাদক সংগঠন বা সংস্থা নথিভুক্ত হয়েছে। এপিইডিএ-র প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে সংস্থার চেয়ারম্যান ডঃ এম অঙ্গমুথু বলেছেন, তার সংস্থার দূরদৃষ্টি মূলক প্রয়াস এবং লাগাতার উচ্চাকাঙ্খী পদক্ষেপের ফলে ভারত কৃষিজ পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে এক নির্ভরযোগ্য এবং গুণগত মানের সামগ্রী রপ্তানিকারী দেশ হয়ে উঠেছে। 
 
 
CG/BD/AS/


(Release ID: 1798149) Visitor Counter : 299


Read this release in: English , Urdu , Hindi , Marathi