স্বাস্থ্যওপরিবারকল্যাণমন্ত্রক

ভারতে গয়টার বা থাইরয়েডের ঘাটতিজনিত সমস্যার ফলে উদ্ভূত সর্বশেষ পরিস্থিতি

Posted On: 08 FEB 2022 12:38PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

 

ভারতে একটা সময় মানুষের মধ্যে আয়োডিন ঘাটতির সমস্যা ছিল। বর্তমানে সেই সমস্যা থেকে বেরিয়ে আসা সম্ভব হয়েছে। থাইরয়েডের ঘাটতি দেখা দিলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায় এবং  হাইপোথাইরয়েডিজেম-এর মতো সমস্যার সৃষ্টি হয়। জাতীয় পরিবার স্বাস্থ্য সমীক্ষার চতুর্থ পর্বে দেশে ২.২ শতাংশ মানুষের মধ্যে এই সমস্যার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। ২০১৫-১৬ সময়কালে সমীক্ষাটি চালানো হয়। পরবর্তীতে ২০১৯-২১ সময়কালে জাতীয় পরিবার স্বাস্থ্য সমীক্ষার পঞ্চম পর্বে ২.৯ শতাংশ মানুষের মধ্যে এই সমস্যা নজরে এসেছে। ২০১৫-১৬ সময়কালে চতুর্থ জাতীয় পরিবার স্বাস্থ্য সমীক্ষায় বলা হয়েছে, ১৫ থেকে ৪৯ বছর বয়সীদের মধ্যে থাইরয়েডের যে ঘাটতির সমস্যা দেখা গেছে সেখানে ২ শতাংশ মহিলা এবং ১ শতাংশেরও কম পুরুষ। ১৫ থেকে ১৯ বছর বয়সী মহিলাদের মধ্যে এই সমস্যা ০.৭ শতাংশ। ২০ থেকে ৩৪ বছর বয়সী মহিলাদের মধ্যে ১.৮ শতাংশ এবং ৩৫ থেকে ৪৯ বছর বয়সী মহিলাদের মধ্যে ৩.৪ শতাংশ মহিলা এই সমস্যার সম্মুখীন। জাতীয় পরিবার স্বাস্থ্য সমীক্ষার পঞ্চম পর্বে বিভিন্ন রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে থাইরয়েড ঘাটতির বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। প্রতি ১ লক্ষ জন মহিলার মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে ৫,২৯৮ জন, ত্রিপুরায় ৩,৬৪৩ জন এবং আসামে ২,৬৪২ জন এই সমস্যার সম্মুখীন।

চতুর্থ দফার সমীক্ষা অনুযায়ী, ১৫ থেকে ৪৯ বছর বয়সী মহিলারা অর্থাৎ, যাঁরা সন্তান ধারণে সক্ষম – তাঁদের মধ্যে ৬ লক্ষ ৯৯ হাজার ৬৮৬ জন মহিলা এই সমস্যায় ভুগছেন। সমীক্ষা অনুযায়ী, দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মানুষদের থেকে ধনী জনগোষ্ঠীর মানুষরা বেশি সংখ্যায় এই সমস্যার সম্মুখীন।

রাজ্যসভায় আজ এক প্রশ্নের লিখিত জবাবে এই তথ্য জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. ভারতী প্রবীণ পাওয়ার।

 

CG/CB/DM/



(Release ID: 1796577) Visitor Counter : 163


Read this release in: English , Urdu , Tamil