পর্যটনমন্ত্রক
azadi ka amrit mahotsav

বৌদ্ধ নিদর্শনগুলিকে কেন্দ্র করে পর্যটনের প্রসারে পর্যটন মন্ত্রক বৌদ্ধ সার্কিট নিয়ে সম্মেলন আয়োজন করবে

Posted On: 05 OCT 2021 12:32PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ০৫ অক্টোবর, ২০২১

 

দেশে কোভিড পরিস্থিতির অভূতপূর্ব অগ্রগতি এবং টিকাকরণের ক্ষেত্রে লক্ষ্য পূরণের পথ শরিক শিল্প সংস্থাগুলিকে নিয়ে পর্যটনের প্রসারে মন্ত্রক প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। দেশে পর্যটন ক্ষেত্রের সার্বিক অগ্রগতি ও বিকাশে দেশি-বিদেশি পর্যটন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বৌদ্ধ নিদর্শনগুলিকে কেন্দ্র করে পর্যটন এমন একটি পরিষেবা, যার প্রতি সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেওয়া হয়। মন্ত্রক পর্যটন কেন্দ্র, আকর্ষণীয় নিদর্শন ও পরিষেবা সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। 

বৌদ্ধ নিদর্শনগুলিতে পর্যটনের সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে মন্ত্রক ৪-৮ অক্টোবর পর্যন্ত বৌদ্ধ সার্কিট ট্রেন এফএএম ট্যুর ও সম্মেলন আয়োজন করেছে। এর অঙ্গ হিসাবে বৌদ্ধগয়া ও বারাণসীর মতো অগ্রণী বৌদ্ধ নিদর্শন কেন্দ্রগুলি ঘুরে দেখা হবে। সম্মেলনে ট্যুর অপারেটর, হোটেল মালিক, গণমাধ্যম ও পর্যটন মন্ত্রকের আধিকারিকরা মিলিয়ে প্রায় ১০০ জন প্রতিনিধি অংশ নিচ্ছেন। বৌদ্ধগয়া ও বারাণসীতে যে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে, তাতে প্রায় ১০০ জন স্থানীয় ট্যুর অপারেটর ও অংশীদার সংস্থা যোগ দেবে বলে মনে করা হচ্ছে। 

ইতিহাস, সংস্কৃতি, দর্শন, ঐতিহ্য ও ধর্মীয় পরম্পরার দিক থেকে ভারত বিশ্বের অন্যতম বৈচিত্র্যময় দেশ। আর, বৈচিত্র্যের এই দিকগুলি একসঙ্গে ভারতকে পর্যটন ও পুণ্যতীর্থের অন্যতম আকর্ষণীয় গন্তব্য করে তুলেছে। ভারতে ভগবান বুদ্ধের জীবন ও বৌদ্ধ পরম্পরার সঙ্গে নিবিড় সম্পর্কযুক্ত এমন অনেক নিদর্শন রয়েছে। তাই, সারা বিশ্ব জুড়ে বৌদ্ধ অনুরাগীদের কাছে ভারতীয় বৌদ্ধ পরম্পরার প্রতি বিশেষ আকর্ষণ আজও অটুট। পর্যটন মন্ত্রক এই মহান ঐতিহ্য ও পরম্পরাগুলিকে বিশ্বের সামনে তুলে ধরতে ভারতকে ‘বৌদ্ধ ভূমি’ হিসাবে প্রচার চালাচ্ছে। 

উল্লেখ করা যেতে পারে, ভারতে আড়াই হাজার বছরের বেশি সময় আগে বৌদ্ধ ধর্মের প্রচলন শুরু হয়। এরপর, তা সারা এশিয়া মহাদেশে ছড়িয়ে পড়ে। বর্তমানে সারা বিশ্বে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী মানুষের সংখ্যা প্রায় ৫০ কোট, যা মোট জনসংখ্যার প্রায় ৭ শতাংশ। 

মন্ত্রক বৌদ্ধ ঐতিহ্যমণ্ডিত স্থান ও নিদর্শনগুলির সঙ্গে বিমান, রেল ও সড়ক পথে যোগাযোগ বাড়ানোর পাশাপাশি, সামগ্রিক পর্যটন পরিকাঠামো ও পরিষেবার মানোন্নয়নে চতুর্মুখী উন্নয়ন কৌশল গ্রহণ করছে। এই লক্ষ্যে স্বদেশ দর্শন কর্মসূচিতে ৫টি প্রকল্প খাতে ৩২৫ কোটি ৫৩ লক্ষ টাকার তহবিল বরাদ্দ করা হয়। তহবিলের এই অর্থ মধ্যপ্রদেশ, উত্তর প্রদেশ, বিহার, গুজরাট ও অন্ধ্রপ্রদেশে বৌদ্ধ সার্কিটগুলির মানোন্নয়নে খরচ করা হচ্ছে। অন্যদিকে, প্রসাদ কর্মসূচির আওতায় ৩টি প্রকল্পের জন্য ৪৪ কোটি ১৯ লক্ষ টাকা মঞ্জুর করা হয়েছে। এর মধ্যে বারাণসীতে ২টি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। 

বিদেশি পর্যটকদের সুবিধার্থে মন্ত্রক ভাষাগত দক্ষতা বৃদ্ধির কয়েকটি উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। ইতিমধ্যেই থাইল্যান্ড, জাপানী, ভিয়েতনামী ও চীনা ভাষায় ৫২৫ জনকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। আগামী দু-এক বছরে আরও ৬০০ জনকে ভাষা-প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াতে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী প্রায় ৯৭ শতাংশ মানুষ বসবাস করেন। তাই, আগত পর্যটকদের সঙ্গে ভাষাগত যোগসূত্র গড়ে তোলা অত্য্যন্ত জরুরি হয়ে উঠেছে। 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1761190) Visitor Counter : 75