অর্থমন্ত্রক

‘প্যান্ডোরা পেপারস’ সম্পর্কিত ঘটনার তদন্ত করা হবে

Posted On: 04 OCT 2021 6:29PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি,  ০৪ অক্টোবর, ২০২১

 

ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অফ ইন্টারন্যাশনাল জার্নালিস্টস (আইসিআইজে) প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে গতকাল দাবি করা হয়েছে যে, ২০০টির বেশি দেশ ও ভৌগলিক এলাকা থেকে বিদেশে গচ্ছিত সম্পদ সমৃদ্ধ সংস্থা ও সম্পদ প্রাচুর্য ব্যক্তির গোপন তথ্য সম্বলিত ২.৯৪ টেরাবাইট ডেটা তাদের হাতে এসেছে। ১৪টি বৈদেশিক পরিষেবা দাতা সংস্থার গোপন তথ্য ফাঁস হওয়ার ভিত্তিতে আইসিআইজে প্রতিষ্ঠান যে অনুসন্ধান চালিয়েছে তাতে ধনসম্পদে প্রাচুর্য ব্যক্তি ও সংস্থা করহার স্বল্প অথবা কর-বিহীন ভৌগলিক এলাকায় গড়ে ওঠা ভুয়ো সংস্থা, ট্রাস্ট, সংগঠন ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত হতে চেয়েছে।

সরকার এই বিষয়টির ওপর নজর রেখেছে। সংশ্লিষ্ট তদন্ত সংস্থা এই ঘটনাগুলি খতিয়ে দেখবে এবং আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। এই ধরণের ঘটনায় যথাযথ তদন্ত নিশ্চিত করতে সরকার বৈদেশিক প্রতিষ্ঠান ও কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ রাখবে, যাতে সংশ্লিষ্ট কর দাতা বা সংস্থা সম্পর্কিত প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করা যায়। উল্লেখ করা যেতে পারে ভারত সরকার আন্তঃসরকারি গোষ্ঠীর সদস্য। এই গোষ্ঠী গোপন তথ্য ফাঁস হওয়ার সঙ্গে সম্পর্কিত কর ঝুঁকি এড়ানোর ক্ষেত্রে পারস্পরিক সহযোগিতা ও অভিজ্ঞতা বিনিময় করে। 

উল্লেখ করা যেতে পারে, আগে আইসিআইজে, এইচএসবিসি, পানামা পেপারস এবং প্যারাডাইস পেপারস-এর পক্ষ থেকেও গোপন তথ্য ফাঁস করার মতো ঘটনায় ভারত সরকার ইতিমধ্যেই কালো টাকা (অপ্রকাশিত বিদেশী আয় ও সম্পদ) এবং কর আরোপ আইন ২০১৫ কার্যকর করেছে। এই আইন কার্যকর করার উদ্দেশ্যই হলো কালো টাকা দমন বা অপ্রকাশিত বৈদেশিক সম্পদ এবং আয়ের ক্ষেত্রে উপযুক্ত কর ও জরিমানা ধার্য করা। পানামা ও প্যারাডাইস পেপারস-এর পক্ষ থেকে পরিচালিত তদন্তে ২০২১-এর ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রায় ২০ হাজার ৩৫২ কোটি টাকার গোপন অর্থের হদিশ মিলেছে। 

গণমাধ্যমে এখনও পর্যন্ত কয়েকজন ভারতীয়ের (ব্যক্তি বিশেষের পাশাপাশি বৈধ সংস্থা) নাম প্রকাশিত হয়েছে। এমনকি আইসিআইজে-র ওয়েবসাইটেও (www.icij.org) ব্যক্তি বিশেষের নাম এবং অন্যান্য সংস্থার বিষয়ে কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। ওয়েবসাইটের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, পর্যায়ক্রমে এই তথ্য প্রকাশ করা হবে এবং প্যান্ডোরা পেপারস-এর তদন্তের সঙ্গে যুক্ত ডেটা বা তথ্য ফাঁস হওয়া বৈদেশিক ডেটাবেসে আগামী দিনে প্রকাশ করা হবে। 

এদিকে, ভারত সরকার আজ সংবাদ মাধ্যমে ‘প্যান্ডোরা পেপারস’ নামে প্রকাশিত ঘটনার ওপর মাল্টি এজেন্সি গ্রুপ নজরদারি করবে বলে নির্দেশ জারি করেছে। এই মাল্টি এজেন্সি গ্রুপের নেতৃত্বে রয়েছেন কেন্দ্রীয় প্রত্যক্ষ কর পর্ষদের চেয়ারম্যান। এছাড়াও এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট, ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক এবং এফআইইউ-এর প্রতিনিধিরা এই গোষ্ঠীতে থাকছেন।

 

CG/BD/SKD/



(Release ID: 1760987) Visitor Counter : 68