প্রতিরক্ষামন্ত্রক
azadi ka amrit mahotsav

প্রতিরক্ষামন্ত্রী শ্রী রাজনাথ সিং ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ১৮-তম ভারত- মার্কিন অর্থনৈতিক শীর্ষ সম্মেলনে ভাষণ দিয়েছেন
মার্কিন সংস্থাগুলিকে ভারতে বিনিয়োগের আবেদন জানানো হয়েছে
আমাদের লক্ষ্য 'মেক ইন ইন্ডিয়া, মেক ফর দ্যা ওয়ার্ল্ড'- প্রতিরক্ষামন্ত্রী

Posted On: 15 SEP 2021 6:02PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১

 

উল্লেখযোগ্য বিষয় সমূহ-

* বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ভারত একটি শক্তিশালী এবং বিশ্বাসযোগ্য দেশ

* মার্কিন সংস্থাগুলিকে যৌথ উদ্যোগের মাধ্যমে প্রযুক্তি হস্তান্তরের বিষয়ে মনোনিবেশ করা উচিত

* তরুণ ভারতীয়দের নিয়ে গবেষণা ও উন্নয়ন একটি শক্তিশালী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা তৈরি করবে

* ভারতে ব্যবসা বান্ধব পরিবেশ তৈরির জন্য সরকার নতুন নতুন ভাবনার উন্মেষ ঘটিয়েছে

প্রতিরক্ষামন্ত্রী শ্রী রাজনাথ সিং মার্কিন সংস্থাগুলিকে ভারতে বিনিয়োগের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর 'মেক ইন ইন্ডিয়া, মেক ফর দ্যা ওয়ার্ল্ড' এই স্বপ্ন বাস্তবায়িত করতে তাঁরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। প্রতিরক্ষামন্ত্রী আজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ইন্দো-আমেরিকান চেম্বার অফ কমার্স আয়োজিত 'বাউন্সিং ব্যাক-রি সাইলেন্ট রিকভারি পাথ পোস্ট কোভিড- ১৯' এই বিষয়ের ওপর ১৮- তম ভারত-মার্কিন অর্থনৈতিক শীর্ষ সম্মেলনের উদ্বোধনী ভাষণ দিয়েছেন।

প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রকে শুধু নিরাপত্তা নয়, দেশের সামগ্রিক বৃদ্ধির অবিচ্ছেদ্য অংশ হিসেবে উল্লেখ করে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বলেন, সরকারের গৃহীত উদ্যোগগুলি ভারতকে একটি শক্তিশালী ও নির্ভরযোগ্য বিনিয়োগের স্থান হিসেবে পরিণত করেছে। তিনি বলেন, ভারত এখন স্থিতিশীল এবং সুরক্ষিত সরকারের অধীনে রয়েছে। ধারাবাহিক সংস্কারের মাধ্যমে অর্থনৈতিক বৃদ্ধির ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, দেশের চাহিদা এবং মেধাবী তরুণদের কর্মশক্তি ও উদ্ভাবনের মাধ্যমে ভারতকে বিনিয়োগের একটি প্রধান গন্তব্যস্থলে পরিগণিত করেছে।

প্রতিরক্ষা খাতে দেশের সম্ভাবনা অনুধাবন করতে যৌথ উদ্যোগের মাধ্যমে প্রযুক্তি হস্তান্তরের দিকে মনোনিবেশ করার জন্য প্রতিরক্ষামন্ত্রী আহ্বান জানিয়েছেন। ভারতের সংস্থাগুলি 'মেক ইন ইন্ডিয়া' এই উদ্যোগকে সম্বল করে উৎপাদনের সুবিধা স্থাপন করতে পারে বলে প্রতিরক্ষামন্ত্রী উল্লেখ করেন। গবেষণা ও বিকাশের ক্ষেত্রে যৌথ উদ্যোগের প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন।

শ্রী রাজনাথ সিং জোর দিয়ে বলেন যে, মার্কিন এবং ভারতীয় প্রতিরক্ষা শিল্পের উৎপাদন এবং সহ বিকাশের জন্য প্রভূত সুযোগ রয়েছে। ভারতীয় শিল্প মার্কিন শিল্প গুলিকে উপাদান সরবরাহ করতে পারে। অন্যদিকে, প্রতিরক্ষা উৎপাদনের ক্ষেত্রে মার্কিন সংস্থাগুলি ভারতকে একটি প্রধান বিনিয়োগের স্থান হিসেবে চিহ্নিত করতে পারে। তিনি বলেন, সরকার ভারতে ব্যবসা বান্ধব পরিবেশ তৈরির জন্য নতুন চিন্তা ভাবনার মাধ্যমে অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করেছে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী তার ভাষণে উল্লেখ করেন যে, ভারত-মার্কিন এই শীর্ষ সম্মেলনটি এমন সময় হচ্ছে যখন ভারত তার স্বাধীনতার ৭৫ বছর উদযাপন করছে। এই সময়েই মার্কিন সংস্থাগুলি আত্মনির্ভর ভারত গঠনে তাদের অবদান রাখার জন্য সুযোগ রয়েছে।  তিনি বলেন, ' আমি নিশ্চিত যে ভারত ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে অর্থনৈতিক ও কৌশলগত অংশীদারিত্বের ক্ষেত্রে এই ফোরাম সেতু হিসেবে কাজ করবে।'

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী উল্লেখ করেন যে, কোভিড-১৯ পরিস্থিতি সত্বেও সরকারের গৃহীত পদক্ষেপের ফলে দেশের অর্থনীতি আবার নিজস্ব স্থানে ফিরে এসেছে। ভারতের জিডিপি গত দু'বছরে বৃদ্ধি পেয়েছে। চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে ২০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। এটি দেশের অর্থনৈতিক মূলনীতির প্রতিফলন বলা যেতে পারে।

এই অতিমারি পরিস্থিতিতে মাস্ক, পিপিই কিট, ভেন্টিলেটরের চাহিদা পূরণ এবং সরকারের সাথে যৌথভাবে কাজ করার জন্য প্রতিরক্ষামন্ত্রী ভারতীয় শিল্পেরও প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, ভারতে যে বিশ্বের সবচেয়ে বড় টিকাদান অভিযান চলছে সেখানে এই শিল্প গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে।

কোভিড পরবর্তী সময়ে অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে ভারত ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে তা ভেবে এই ইন্দো-মার্কিন অর্থনৈতিক শীর্ষ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। সম্মেলনে ভারত ও মার্কিন ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন। এই শীর্ষ সম্মেলনে মহিলাদের ক্ষমতায়নের মতো সামাজিক বিষয়ও রাখা হয়েছে।

 

CG/ SB



(Release ID: 1755273) Visitor Counter : 177


Read this release in: Tamil , English , Urdu , Hindi