স্বাস্থ্যওপরিবারকল্যাণমন্ত্রক
azadi ka amrit mahotsav

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী শ্রী মনসুখ মান্ডভিয়া আজ দেওঘরের এইমসে নবনির্মিত আয়ুশ ভবনে বহির্বিভাগে রোগী পরিষেবা এবং নৈশ আশ্রয় স্থলের সূচনা করেছেন
শ্রী মান্ডভিয়া জানান,নতুন এই ব্যবস্থার দরুন ঝাড়খণ্ডের ৩ কোটির বেশি মানুষ উপকৃত হবেন

Posted On: 24 AUG 2021 1:50PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লী,২৪ শে অগাস্ট,২০২১



কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী শ্রী মনসুখ মান্ডভিয়া আজ দেওঘরের এইমস হাসপাতালে নবনির্মিত আয়ুশ ভবন এবং নৈশআশ্রয়স্থল জাতির উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করেছেন।অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ড:ভারতী প্রভিন পাওয়ার। শ্রী মান্ডাভিয়া একই সঙ্গে নবনির্মিত আয়ুশ ভবনে বহির্বিভাগে রোগী পরিষেবার সূচনা করেন।

ঝাড়খণ্ডের স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা শিক্ষামন্ত্রী শ্রী বন্না গুপ্তা,ক্রীড়া ও সংখ্যালঘু কল্যাণমন্ত্রী শ্রী হাফিজুল হাসান,গোদ্দা লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ শ্রী নিশিকান্ত দুবে,ঝাড়খন্ড থেকে নির্বাচিত রাজ্যসভার সদস্য শ্রী সমীর ওরাওঁ প্রমুখ এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান,দেওঘরের মানুষ,এর দরুন সর্বোত্তম চিকিৎসা পরিষেবা পাবেন।তিনি বলেন,২০১৮ সালের ২৫শে মে' এই প্রতিষ্ঠানের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী।এর ফলে বহির্বিভাগে চিকিৎসা পরিষেবা পাবেন গোটা ঝাড়খণ্ডের দূরদূরান্ত থেকে আসা রোগীরা। তাঁরা রাতে থেকে চিকিৎসা সম্পূর্ণ করতেও পারবেন। এই প্রতিষ্ঠান শুধুমাত্র দেওঘরের ১৫ লক্ষ বাসিন্দাকে পরিষেবা প্রদান করবে তা নয়,গোটা ঝাড়খণ্ডের ৩ কোটি ১৯ লক্ষ মানুষ এর ফলে উপকৃত হবেন বলে তিনি জানান।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান,প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় সরকার গোটা অতিমারী কালে রাজ্যের পাশে ছিল। ইসিআরপি 1 এবং 2 এই করোনা কালে বিশেষ সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে।পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী স্বাস্থ্য সুরক্ষা যোজনা,চিকিৎসার ভারসাম্য বজায় রাখতে কার্যকরী ভূমিকা পালনে সক্ষম হয়েছে।

তিনি বলেন,এই প্রতিষ্ঠান গোটা ঝাড়খণ্ডে কোভিড মোকাবিলায় সবরকম ভাবে সহায়তা করবে।শ্রী দীনদয়াল উপাধ্যায়ের দেখানো পথে 'অন্ত্যদয়া'র মাধ্যমে পিএমএসএসওয়াই য়ের সহায়তায় সমাজের প্রতিটি পিছিয়ে থাকা মানুষের কাছে পরিষেবা পৌঁছে দেওয়াই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের মূল লক্ষ্য। এই প্রসঙ্গে তিনি জানান,ভূপাল,ভুবনেশ্বর,রায়পুর,পাটনা,যোধপুর এবং ঋষীকেশের মোট ৬ টি এইমসে পুরোদমে কাজ চলছে।

দেওঘর এইমসে বহির্বিভাগ চিকিৎসার জন্য রোগীরা জেনারেল মেডিসিন, পালমোলজি, সাইক্রিয়াট্রি, ডারমটোলজি, সার্জিক্যাল, অর্থপেডিক, ইএনটি, অপথালমোলজি, পেডিয়াট্রিক, শিশু ও নবজাতকদের টিকাকরণ, গায়নোকলজি, ডেন্ট্রিস্ট্রি, প্যাথলজি এবং মাইক্রোবায়োলজি, রেডিওলজি প্রমুখ পরিষেবা পাবেন।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ড: ভারতী পাওয়ার সকলকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন,দেওঘরে এইমস খুব শীঘ্রই ৩০ টি আয়ুশ শয্যা সহ ৭৫০ শয্যার হাসপাতাল হিসাবে কাজ শুরু করবে। ১০০ এমবিবিএস এবং ৬০ টি নার্সিং আসন থাকবে।তিনি বলেন,ঝাড়খণ্ডের দেওঘরে এইমস নির্মান,স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় সরকারের সবথেকে ভালো বিনিয়োগ।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব শ্রী রাজেশ ভূষণ, দেওঘর এইমসের সভাপতি অধ্যাপক ড: এন কে অররা,মুখ্য কার্যনির্বাহী আধিকারিক এবং মুখ্য নির্দেশক অধ্যাপক ড:সৌরভ ভর্শনে প্রমুখ।

 

CG/PPM



(Release ID: 1748698) Visitor Counter : 93


Read this release in: English , Urdu , Hindi , Tamil