ক্রেতা, খাদ্যএবংগণবন্টনমন্ত্রক

রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে ২০২১-২২ রবি বিপণন মরশুমে গম সংগ্রহ সুষ্ঠুভাবে চলছে

Posted On: 29 APR 2021 8:01PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২৯ এপ্রিল, ২০২১

 

২০২১-২২ রবি বিপণন মরশুমে গম সংগ্রহ প্রক্রিয়া সম্প্রতি শুরু হয়েছে। গত মরশুমের মতো এবার পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, উত্তরাখণ্ড, চণ্ডীগড়, হিমাচল প্রদেশ, দিল্লি, গুজরাট এবং জম্মু ও কাশ্মীর থেকে গম সংগ্রহ শুরু হয়েছে। এখনও পর্যন্ত (২৮ এপ্রিল) ন্যূনতম সহায়ক মূল্যে ৫১,১০০ কোটি টাকার বিনিময়ে ২৫ লক্ষ ৮ হাজারের বেশি কৃষকের কাছ থেকে ২ কোটি ৫৮ লক্ষ মেট্রিক টনের বেশি গম সংগ্রহ করা হয়েছে। 

অন্যদিকে, ২০২০-২১ খরিফ মরশুমে ধান সংগ্রহের কাজ সুষ্ঠুভাবে এগিয়ে চলেছে। গত মরশুমের মতো এবারও ন্যূনতম সহায়ক মূল্যে ৭ কোটি ১৫ লক্ষ মেট্রিক টনের বেশি ধান সংগ্রহ করা হয়েছে। গত ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত ওই পরিমাণ ধান সংগ্রহে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য হিসেবে ১ লক্ষ ৩৫ হাজার ৫৭ কোটি ৪৩ লক্ষ টাকা ব্যয় করা হয়েছে। 

রাজ্যগুলির কাছ থেকে পাওয়া প্রস্তাবের ওপর ভিত্তি করে ২০২০-২১ খরিফ বিপণন মরশুম এবং ২০২১-এ রবি বিপণন মরশুম থেকে ১ কোটি ৭ লক্ষের বেশি ডালশস্য ও তৈলবীজ সংগ্রহে অনুমতি দেওয়া হয়েছে। মূল্য সহায়তা কর্মসূচির আওতায় তামিলনাড়ু, কর্ণাটক, মহারাষ্ট্র, তেলেঙ্গানা, গুজরাট, উত্তরপ্রদেশ, ওড়িশা, রাজস্থান, অন্ধ্রপ্রদেশ প্রভৃতি রাজ্য থেকে ডালশস্য ও তৈলবীজ সংগ্রহ করা হবে। ইতিমধ্যেই অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্ণাটক, তামিলনাড়ু ও কেরল থেকে ১ লক্ষ ২৩ হাজার মেট্রিক টন কোপড়া সংগ্রহের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। 

সরকার একাধিক নোডাল এজেন্সির মাধ্যমে গত ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত ৬ লক্ষ ৯ হাজার ২১০ মেট্রিক টনের বেশি মুগ ডাল, বিউলি, অড়হর, ছোলা, মুসুর, সরষে ও সোয়াবিন সংগ্রহ করেছে। ন্যূনতম সহায়ক মূল্যে এই সংগ্রহ খাতে খরচ হয়েছে ৩,১৯৫ কোটি টাকার বেশি। ২০২০-২১ খরিফ এবং ২০২১-এর রবি মরশুম থেকে বিভিন্ন ধরনের ডালশস্য সংগ্রহের ফলে ৩ লক্ষ ৯৭ হাজারের বেশি কৃষক লাভবান হয়েছেন। 

 

SC/BD/DM/



(Release ID: 1715134) Visitor Counter : 6


Read this release in: English , Urdu , Hindi , Punjabi