পর্যটনমন্ত্রক

মেগা ট্যুরিজম প্রচারের অনুষ্ঠান " কাশ্মীরে পর্যটন প্রসারের সম্ভাবনা: ভূ-স্বর্গে আরও একটি দিন" জম্মু-কাশ্মীরের পর্যটনের সম্ভাবনা নিয়ে শ্রীনগরে সম্মেলন

Posted On: 18 APR 2021 12:12PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ১৮ এপ্রিল, ২০২১

 

জম্বু-কাশ্মীরের বিভিন্ন পর্যটন ক্ষেত্রগুলির প্রচার এবং কেন্দ্রশাসিত এই অঞ্চলের ভ্রমণ, পর্যটন ও আতিথেয়তার দিকে লক্ষ্য রেখে পর্যটন মন্ত্রক এবং জম্মু-কাশ্মীর সরকারের পর্যটন বিভাগ এক সম্মেলনের আয়োজন করে। যার বিষয় ছিল "কাশ্মীরের পর্যটন সম্ভাবনা: ভূস্বর্গে আরও একটি দিন"। এই নেটওয়ার্কিং প্লাটফর্মের সহযোগিতা করেছিল ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ান চেম্বারস অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি এবং ইন্টারন্যাশনাল গ্রুপ অফ ট্রেজারি অ্যাসোসিয়েশনস। কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল জম্মু-কাশ্মীরের লেফটেন্যান্ট গভর্নর শ্রী মনোজ সিনহা এবং কেন্দ্রীয় পর্যটন ও সংস্কৃতি মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী শ্রী প্রহ্লাদ সিং প্যাটেল এই সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। এই অনুষ্ঠানের মূল উদ্দেশ্য ছিল, জম্মু-কাশ্মীরের অগণিত পর্যটন পণ্য প্রদর্শন করার পাশাপাশি এই রাজ্যের পর্যটনকে প্রচারের আলোয় নিয়ে আসা বিশেষ করে প্রচারের আলোয় না আসা নতুন পর্যটন অঞ্চল গুলি। পর্যটন মন্ত্রকের সচিব শ্রী অরবিন্দ সিং অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

পর্যটনের এই প্লাটফর্মটি ব্যবহার করে ভ্রমণ ও পর্যটনের কিভাবে প্রসার ঘটানোর যায় তা নিয়ে সবিস্তারে আলোচনা হয়। পরে এক বৈঠকে স্থানীয় ট্যুর অপারেটর থেকে শুরু করে হোটেল পরিচালক, হাউসবোটের মালিক এবং বিভিন্ন পরিবহন সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জম্মু-কাশ্মীরের লেফটেন্যান্ট গভর্নর শ্রী মনোজ সিনহা বলেন, জম্মু-কাশ্মীর অঞ্চলটিকে ফিল্মের শুটিং এর উপযুক্ত স্পট হিসেবে প্রচার করতে ফিল্ম শুটিং সম্পর্কিত নতুন নীত প্রণয়ন করা হচ্ছে।

কেন্দ্রীয় পর্যটন ও সংস্কৃতি মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী শ্রী প্রহ্লাদ সিং প্যাটেল উল্লেখ করেন যে, ৩৭০ ধারা বিলোপের পর উন্নয়নমূলক কাজ গুলি বৃদ্ধি পাওয়ায় পর্যটকদের আগমন অনেকটাই বেড়েছে।

জম্মু-কাশ্মীর সরকারের লেফটেন্যান্ট গভর্নরের উপদেষ্টা জনাব বাসির খান বলেন, লকডাউনের পর ধীরে ধীরে জম্মু-কাশ্মীরে পর্যটকদের আনাগোনা বেড়েছে। আশা করা যায় গ্রীষ্মের এই মৌসুমে পর্যটকদের আগমন আরও বেশি করে হবে।

ভারত সরকারের পর্যটন মন্ত্রী সচিব শ্রী অরবিন্দ সিং জানান, জম্মু-কাশ্মীরের পর্যটনকে পুনরুদ্ধার করতে তাঁরা বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন। বিশেষ করে অনাবিষ্কৃত জায়গাগুলি প্রচারের ওপর তিনি জোর দেন। যেখানে ছুটির দিনে খুব বেশি ভ্রমণকারী ভ্রমণ করেন না।

জম্মু-কাশ্মীরের সরকারের পর্যটন সচিব জনাব সরমাদ হাফিজ জানান, এই অঞ্চলের ঐতিহাসিক কিছু পর্যটন স্থান এবং তাদের গুরুত্ব তুলে ধরা হয়েছে।

"কাশ্মীরকে পরবর্তী পর্যায়ের গন্তব্যস্থল হিসাবে নিয়ে যাওয়া" শীর্ষক এই সম্মেলনে যোগ দেয়া বিশেষজ্ঞরা করোনার পরিপ্রেক্ষিতে কিভাবে বিশ্বজুড়ে পর্যটনের সম্ভাবনা বাড়ানো যায় তা নিয়ে আলোচনা করেন।

সম্মেলনস্থলে কাশ্মীরের বিভিন্ন পোশাক এবং খাবারের প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছিল। এর পাশাপাশি আলোচনাসভায় যোগ দিতে আসা প্রতিনিধিদের জন্য ডাল লেকে শিকারা এবং নৌকা বাইচের আয়োজন করা হয়েছিল। পরে ডাল লেকে একটি সুন্দর লেজার শো এবং মিউজিকাল ঝর্ণার ব্যবস্থা করা হয়।

কাশ্মীরের টিউলিপ বাগান একটি অনন্য পর্যটন স্থান যা বলিউডের বেশ কয়েকটি ‌ ছবিতে প্রদর্শিত হয়েছিল।

কাশ্মীর ভারতের শীর্ষস্থানীয় এবং বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ গলফ্ পর্যটন গন্তব্য হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। গ্রীষ্মের সময় এখানে গলফ খেলোয়াড়রা খেলার সুযোগ পান। জম্মু-কাশ্মীরের গলফিং সর্বদাই একটি আনন্দময় এবং পর্যটকদের মধ্যে অন্যতম প্রধান আকর্ষণ হিসাবে বিরাজ করে।

ভিয়েতনামের রাষ্ট্রদূত এইচ এম ফাম সান চৌচৌ যিনি বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে কাটিয়েছেন, তিনি কাশ্মীরের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের সাথে কানাডা, সুইজারল্যান্ড, এবং ইউরোপের অন্যান্য দেশের সঙ্গে তুলনা করেছেন। তাঁর মতে, একজন পর্যটক কেবল কাশ্মীরেই পুরো বিশ্বের সৌন্দর্য খুঁজে পেতে পারেন।

কেনিয়ার হাইকমিশনার হিজলেনিসি উইলি কিপকোরির বেট আবার গলফ কোর্টের প্রশংসা করেন।

জর্জিয়ার রাষ্ট্রদূত এইচ আর্কিল তো গুলমার্গের সৌন্দর্যে অভিভূত হয়ে যান। তিনি গুলমার্গ সফরকালে স্কিইং উপভোগ করেছিলেন।

 

CG/ SB



(Release ID: 1712557) Visitor Counter : 72


Read this release in: English , Urdu , Hindi , Punjabi