সংসদবিষয়কমন্ত্রক

সংসদের বাজেট অধিবেশন অনির্দিষ্টকালের জন্য মুলতুবি;



উভয় কক্ষে মোট ১৮টি বিল পাশ;

এবারের অধিবেশনে লোকসভায় প্রায় ১১৪ শতাংশ এবং রাজ্যসভায় ৯০ শতাংশ কাজকর্ম হয়েছে

Posted On: 25 MAR 2021 4:53PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২৫ মার্চ ২০২১



সংসদের বাজেট অধিবেশন আজ অনির্দিষ্টকালের জন্য মুলতুবি হয়ে গেছে। গত ২৯ ফেব্রুয়ারি অধিবেশনের সূচনা হয়েছিল। এই সময়ের মধ্যে রাজ্যসভা ১২ ফেব্রুয়ারি ও লোকসভা ১৩ ফেব্রুয়ারি অবকাশের দরুণ মুলতুবি ঘোষণা করা হয়। এরপর, গত ৮ মার্চ বিভাগীয় স্থায়ী কমিটিগুলির অনুদান সংক্রান্ত দাবি-দাওয়া খতিয়ে দেখার জন্য অধিবেশন পুনরায় শুরু হয়।


এবারের বাজেট অধিবেশন সম্পর্কে সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী শ্রী প্রহ্লাদ যোশী বলেছেন, লোকসভার ২৪বার এবং রাজ্যসভায় ২৩বার অধিবেশন বসেছে। অধিবেশনের প্রথম পর্বে লোকসভায় ১২বার এবং রাজ্যসভায় ১১ বার অধিবেশন বসে। অধিবেশনের দ্বিতীয় পর্বে লোকসভা ও রাজ্যসভায় ১২ বার করে অধিবেশন বসে। 


বাজেট অধিবেশনের সময়সীমা  আগামী ৮ এপ্রিল পর্যন্ত চলার কথা  থাকলেও কয়েকটি রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে নির্বাচন প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণের জন্য উভয় সভায় রাজনৈতিক দলগুলির সদস্যদের দাবির প্রেক্ষিতে অধিবেশনের মেয়াদ কমিয়ে আনা হয়েছে।


চলতি বছরের প্রথম অধিবেশন গত ২৯ জানুয়ারি সংসদের উভয় কক্ষে রাষ্ট্রপতির অভিভাষণের মধ্য দিয়ে শুরু হয়। লোকসভায় রাষ্ট্রপতির অভিভাষণের প্রেক্ষিতে ধন্যবাদ সূচক প্রস্তাব পেশ করেন শ্রীমতী লকেট চ্যাটার্জী। রাজ্যসভায় ধন্যবাদ সূচক প্রস্তাব পেশ করেন শ্রী ভুবনেশ্বর কলিতা। অধিবেশনের প্রথম পর্বেই উভয় কক্ষে রাষ্ট্রপতির অভিভাষণের প্রক্ষিতে ধন্যবাদ সূচক প্রস্তাব নিয়ে আলোচনার পর তা গৃহীত হয়।


২০২১-২২ সালের কেন্দ্রীয় বাজেট পেশ করা হয় গত ১ ফেব্রুয়ারি। অধিবেশনের প্রথম পর্বেই বাজেট নিয়ে উভয় কক্ষেই প্রাথমিক আলাপ-আলোচনা হয়েছে। বাজেট প্রস্তাব নিয়ে লোকসভায় পূর্ব-নির্ধারিত ১০ ঘণ্টার পরিবর্তে ১৪ ঘণ্টা ৪৪ মিনিট এবং রাজ্যসভায় ১০ ঘণ্টার পরিবর্তে ১০ ঘণ্টা ৫৬ মিনিট ধরেদ আলোচনা হয়। লোকসভায় রেল, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের অনুদান সংক্রান্ত দাবি-দাওয়া নিয়ে আলোচনার পর তা পৃথক পৃথকভাবেই গৃহীত  হয়েছে। এরপর, বিভিন্ন মন্ত্রক ও দপ্তরের অনুদান সংক্রান্ত দাবি-দাওয়াগুলি নিয়ে ভোটাভুটি চলে ১৭ মার্চ পর্যন্ত। লোকসভায় বিভিন্ন মন্ত্রক ও দপ্তরের ব্যয়-বরাদ্দ সংক্রান্ত বিল পেশ করার পর তা পাশ হয়ে যায়। 


লোকসভায় গত ২৩ মার্চ অর্থ বিল ২০২১ পাশ হয়েছে। রাজ্যসভাও বিভিন্ন মন্ত্রক ও দপ্তরের ব্যয়-বরাদ্দ সংক্রান্ত বিল ২৩ মার্চ অনুমোদন করেছে। অর্থ বিল ২০২১-ও অনুমোদিত হয়েছে। এবারের অধিবেশনে সংসদের উভয় কক্ষে মোট ২০টি বিল পেশ করা হয়। এর মধ্যে লোকসভায় ১৭টি এবং রাজ্যসভায় ৩টি বিল ছিল। লোকসভা ১৮টি বিল পাশ করেছে এবং রাজ্যসভায় পাশ হয়েছে ১৯টি বিল। সবমিলিয়ে এবারের অধিবেশনে উভয় কক্ষেই ১৮টি বিল পাশ হয়েছে।


এবারের অধিবেশনে সংসদের উভয় কক্ষে গুরুত্বপূর্ণ যে বিলগুলি পাশ হয়েছে, তার মধ্যে রয়েছে –


• দ্য মাইনস্ অ্যান্ড মিলনারেলস্ (ডেভেলপমেন্টস্ অ্যান্ড রেগুলেশন) অ্যামেন্ডমেন্ট বিল, ২০২১।
• বিমা সংশোধন বিল ২০২১।
• দ্য আর্বিট্রেশন অ্যান্ড কনসিলিয়েশন (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল, ২০২১।
• দ্য ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক ফর ফাইনান্সিং ইনফ্রাস্ট্রাকচার অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট বিল, ২০২১।
• দ্য মেজর পোর্ট অথরিটিজ বিল, ২০২১।
• দ্য মেডিকেল টার্মিনেশন অফ প্রেগন্যান্সি (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল, ২০২১।
• দ্য কন্সটিটিউশন (সিডিউলড কাস্টস্) অর্ডার (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল, ২০২১।
• দ্য ন্যাশনাল ক্যাপিটাল টেরিটরি অফ দিল্লি লজ (স্পেশাল প্রভিশনস্) সেকেন্ড (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল, ২০২১।
• দ্য গভর্নমেন্ট অফ ন্যাশনাল ক্যাপিটাল টেরিটরি অফ দিল্লি (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল, ২০২১।

লোকসভায় মহিলাদের ক্ষমতায়ন নিয়ে স্বল্প সময়ে আলোচনা হয়েছে। তবে, এ বিষয়ে কোনও নিষ্পত্তি হয়নি। শ্রী যোশী আরও জানান, এবারের বাজেট অধিবেশনে লোকসভায় প্রায় ১১৪ শতাংশ এবং রাজ্যসভায় ৯০ শতাংশ কাজকর্ম হয়েছে।

***

 


CG/BD/SB



(Release ID: 1707610) Visitor Counter : 555