বিজ্ঞানওপ্রযুক্তিমন্ত্রক

পুনের আগরকর গবেষণা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞানীরা মহারাষ্ট্র ও কর্ণাটকের পশ্চিম ঘাটে দুটি নতুন প্রজাতির পাইপওয়ার্টস আবিষ্কার করেছেন

Posted On: 04 OCT 2020 6:15PM by PIB Kolkata
নতুন দিল্লি, ০৪ অক্টোবর, ২০২০
 
 
 
 
বিশ্বের জীব বৈচিত্রের ৩৫টি জায়গার মধ্যে অন্যতম হলো ভারতের পশ্চিমঘাট। এই পশ্চিমঘাটে বৈচিত্রময় ঔষধির জন্য পরিচিত একটি উদ্ভিত গোষ্ঠীর দুটি নতুন প্রজাতি ঔষধি গাছ আবিষ্কার হয়েছে। এই উদ্ভিদগুলি পাইপওয়ার্টস নামে পরিচিত। এদের বৈজ্ঞানিক নাম অ্যারিয়োকোলন। এই গাছগুলি কেবল বর্ষার মরশুমে জন্মায়। ভারতের পশ্চিমঘাটে এই গাছগুলির ১১১ রকম প্রজাতি রয়েছে। 
 
কিছু কিছু প্রজাতি পূর্ব হিমালয়েও পাওয়া যায়। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এই ধরণের ৭০ শতাংশ প্রজাতির অনুসন্ধান পাওয়া গেছে। অ্যারিয়োকোলন সিনেরিয়াম নামে একটি প্রজাতি থেকে ক্যান্সাল, অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি এবং ব্যাথা কমানোর ওষুধ তৈরি করা হয়। ই. কুইনক্যাঙ্গুলার প্রজাতি থেকে যকৃত রোগের ওষুধ তৈরি হয়। ই. মেডিপার্নেস প্রজাতিটি কেরালা থেকে পাওয়া গেছে। এই নতুন আবিষ্কৃত প্রজাতিটির ঔষধি বিশিষ্টগুলি নিয়ে এখনও গবেষণা চালানো হচ্ছে। 
 
ভারত সরকারের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের অন্তর্গত পুনের স্বশাসিত সংস্থা আগরকর গবেষণা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞানীরা সম্প্রতি মহারাষ্ট্র এবং কর্ণাটকে দুটি নতুন প্রজাতির পাইপওয়ার্টস আবিষ্কার করেছেন। 
 
পশ্চিমঘাটে জীব বৈচিত্রের বিষয়ে অনুসন্ধান চালাতে গিয়ে তাঁরা এই দুই নতুন প্রজাতির সন্ধান পান বলে জানিয়েছেন গবেষণা দলের প্রধান ডঃ রীতেশ কুমার চৌধুরী। তিনি বলেন, এখন এই দুই নতুন প্রজাতির ডিএনএ-র পরীক্ষার কাজ চলছে। এর আগে অনুসন্ধান মেলা প্রজাতিগুলির সঙ্গে নতুন আবিষ্কৃত প্রজাতির মধ্যে পার্থক্য খুঁজে বের করার প্রয়াস চালানো হচ্ছে বলেও তিনি জানন। 
 
 
 
CG/SS/SKD


(Release ID: 1661666) Visitor Counter : 109