স্বাস্থ্যওপরিবারকল্যাণমন্ত্রক

যক্ষ্মা নির্মূল করতে দেশজুড়ে সচেতনতা প্রচারাভিযানে ৭৫টি ট্রাকের যাত্রা সূচনা ডা. মনসুখ মাণ্ডব্যর

Posted On: 16 MAR 2023 6:27PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ১৬ মার্চ, ২০২৩


যক্ষ্মা নির্মূল করার কাজে জন-ভাগীদারির ভাবধারায় উদ্বুদ্ধ এবং সঙ্ঘবদ্ধ সমগ্র দেশ। লক্ষ্যসীমা ২০৩০-এর পাঁচ বছর আগেই দেশ থেকে যক্ষ্মা নির্মূল করতে প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীজির ডাক দেশবাসীকে অনুপ্রেরণা যুগিয়েছে। পুষ্টি সহায়তা এবং অন্যান্য নানা সাহায্য নিয়ে ১০ লক্ষেরও বেশি যক্ষ্মা রোগীর সাহায্যে ৭১ হাজারেরও বেশি ‘নিক্ষয় মিত্র’ এগিয়ে এসেছেন। যক্ষ্মা নির্মূল করতে কেন্দ্রীয় সরকারের ‘নিক্ষয় যোজনা’ সমস্ত স্তরের কর্পোরেট অংশীদার, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন, জনপ্রতিনিধি এবং ব্যক্তিবিশেষের যোগদানের মধ্য দিয়ে গড়ে উঠেছে। নতুন দিল্লিতে যক্ষ্মার বিরুদ্ধে সহযোগিতামূলক শিখর সম্মেলনে ভাষণ দিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী ডা. মনসুখ মাণ্ডব্য একথা জানান। তিনি এই জনসচেতনতা প্রসার অভিযানে ৭৫টি ট্রাকের যাত্রা সূচনা করেন। এগুলি অ্যাপোলো টায়ার ফাউন্ডেশন প্রদত্ত। তারাও এই ‘নিক্ষয় যোজনা’কে সর্বতো সাহায্য করছে। যক্ষ্মামুক্ত ভারত গড়ে তোলার জনসচেতনতা প্রচার করতে দেশজুড়ে এই ট্রাকগুলি সফর করবে।


অনুষ্ঠানে যক্ষ্মা রোগীদের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী নিউট্রিশন বাস্কেট বিতরণ করেন।


কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ব্যাখ্যা করে বলেন, সামাজিক এবং জাতীয় দায়বদ্ধতার অঙ্গীকারস্বরূপ ভারতের নিজস্ব স্বাস্থ্য সেবা মডেল রয়েছে। সমস্ত অংশীদারদের সহযোগিতায় গড়ে ওঠা জাতীয় যক্ষ্মা নির্মূলকরণ কর্মসূচি এক বহুস্তরীয় ব্যবস্থা। তিনি বলেন, যৌথ প্রয়াসের মধ্য দিয়ে ২০২৫ সালের মধ্যে আমরা যক্ষ্মামুক্ত ভারত গড়ে তোলার লক্ষ্য অর্জন করতে পারি। জন-ভাগীদারির ভাবধারায় উদ্বুদ্ধ হয়ে আমি সকলকে এই লক্ষ্য পূরণের অঙ্গীকার নিয়ে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। ডা. মাণ্ডব্য বলেন, ‘নিক্ষয় মিত্র’ যক্ষ্মা রোগীদের আর্থিক এবং পুষ্টি সাহায্যই প্রদান করে না, ‘নিক্ষয় মিত্র পোর্টাল’-এর মাধ্যমে তাঁদের সার্বিক কল্যাণে ব্যক্তিগত সংযোগও গড়ে তোলে।


ডা. মাণ্ডব্য জানান যে অ্যাপোলো টায়ার ফাউন্ডেশনের দেওয়া যক্ষ্মা নির্মূল প্রচারাভিযানে যোগ দেওয়া এই ট্রাকগুলি পাঁচটি জায়গা - দিল্লি, গুজরাটের মুন্দ্রা বন্দর, হায়দরাবাদ, জলন্ধর ও আগরতলা থেকে যক্ষ্মা নির্মূল করার বার্তা বহন করছে এবং এগুলি ট্রাককর্মীদের মধ্যে যক্ষ্মা নির্মূল করার প্রয়াসে সহায়ক হবে।


স্বাস্থ্য মন্ত্রকের অতিরিক্ত সচিব এবং জাতীয় স্বাস্থ্য মিশনের ম্যানেজিং ডিরেক্টর শ্রীমতী রোলি সিং বিভিন্ন কর্পোরেট সংস্থা ও অন্য সহকারী সংস্থাগুলিকে যক্ষ্মামুক্ত ভারত গড়ে তোলার অভিযানে অংশ নেওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানান।


যক্ষ্মা এবং ফুসফুস সংক্রান্ত রোগের আন্তর্জাতিক সংস্থার দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার আঞ্চলিক অধিকর্তা ডা. কুলদীপ সিং সচদেব, অ্যাপোলো টায়ার্স লিমিটেডের অর্থ সংক্রান্ত মুখ্য আধিকারিক শ্রী গৌরব কুমার, ঐ সংস্থারই শ্রীমতী রিনিকা গ্রোভার অন্যদের মধ্যে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।


এই অনুষ্ঠান প্রত্যক্ষ করা যাবে - https://youtube.com/live/SySolzPQFWI?feature=share - এই লিঙ্কে।

PG/AB/DM



(Release ID: 1907952) Visitor Counter : 86


Read this release in: English , Urdu , Hindi , Punjabi