আবাসনএবংশহরাঞ্চলেরদারিদ্র্যদূরীকরণমন্ত্রক
azadi ka amrit mahotsav

আবাসন ও শহরাঞ্চল বিষয়ক মন্ত্রকের সচিব ‘লাভার্থীয় সে রুবারূ’ মতবিনিময় অনুষ্ঠানে পৌরোহিত্য করেছেন

Posted On: 17 FEB 2022 4:36PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

 

কেন্দ্রীয় আবাসন ও শহরাঞ্চল বিষয়ক মন্ত্রকের সচিব শ্রী মনোজ যোশী আজ নতুন দিল্লিতে এক ভার্চ্যুয়াল অনুষ্ঠানে আসাম, ঝাড়খণ্ড ও কেরলের ‘প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার (শহরাঞ্চল)’ সুফলভোগীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। ভার্চ্যুয়াল এই মতবিনিময় অনুষ্ঠানে যোজনার এক সুফলভোগী জানান, আমাদের জীবনে অভাবনীয় পরিবর্তন এসেছে এবং আমরা এখন সমাজে মর্যাদার সঙ্গে বাস করছি। এই মতবিনিময় অনুষ্ঠানে মন্ত্রকের যুগ্ম সচিব তথা যোজনার মিশন ডায়রেক্টর শ্রী কুলদীপ নারায়ণ উপস্থিত ছিলেন। যোজনার সুফলভোগীদের সঙ্গে সরাসরি মতবিনিময় এবং কর্মসূচির বাস্তবিক অগ্রগতি সরেজমিনে খতিয়ে দেখতেই এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

মন্ত্রকের সচিব আজ ভার্চ্যুয়াল পদ্ধতিতে আসাম, ঝাড়খণ্ড ও কেরলের সুফলভোগীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন এবং তাঁদের জীবনে নিজস্ব পাকা বাড়ি আসার পর কি পরিবর্তন হয়েছে তা জানতে চান। যোজনার আওতায় নির্মিত গৃহগুলিও তিনি ভার্চ্যুয়াল পদ্ধতিতে পরিদর্শন করেন। আসাম থেকে এই ভার্চ্যুয়াল মতবিনিময় অনুষ্ঠানে শ্রীমতী কুন্তি সিং এবং মিলন মণ্ডল যোগ দেন। ঝাড়খণ্ড থেকে যোগ দেন শ্রীমতী মণীষা কাচ্চাপ এবং শ্রীমতী মামনি পাল। কেরল থেকে যোগ দেন শ্রীমতী রাধামনি এবং শ্রীমতী সুমা আর। মন্ত্রকের সচিব সুফলভোগীদের সঙ্গে পৃথক পৃথকভাবে মতবিনিময়ের সময় তাঁদের জীবনযাত্রা, তাঁদের পরিবারের সদস্য, পাকা বাড়ি হাতে পাওয়ার পর তাঁদের অনুভূতি এবং বাড়ি নির্মাণের সময় তহবিল খাতে কোনরকম সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন কিনা, সে সম্পর্কে জানতে চান। সুফলভোগীরা সচিবকে জানান, পাকা বাড়ি পাওয়ার পর তাঁদের স্বপ্ন সত্যি হয়েছে। এই কর্মসূচি যদি না থাকত তাহলে তাঁদের নিজেদের পাকা বাড়ির স্বপ্ন অপূর্ণই থেকে যেত। আসামের ঢেকিয়াজুলি থেকে সুফলভোগী শ্রীমতী কুন্তি সিং জানান, তাঁর নিজের ঘর বানানোর স্বপ্ন অপূর্ণই থেকে যেত যদি এই কর্মসূচির সুবিধা তাঁর কাছে না পৌঁছত। কুন্তি দেবী একটি সেলাই প্রশিক্ষণ বিদ্যালয় চালান যেখানে ৭৫ জন বালিকা প্রশিক্ষণ নিচ্ছে।

ঝাড়খণ্ডের সুফলভোগী শ্রীমতী মামনি পাল জানিয়েছেন, এই কর্মসূচিতে নিজস্ব বাড়ি হাতে পাওয়ার পর সমাজে তাঁর মর্যাদা বৃদ্ধি পেয়েছে। রাঁচি থেকে কর্মসূচির সুফলভোগী শ্রীমতী মণীষা কাচ্চাপ্পা জানিয়েছেন, তাঁর ছোট ছোট বাচ্চাদের জন্য নিজস্ব বাড়ি বানাতে পেরে তিনি নিজেকে অত্যন্ত সৌভাগ্যবান মনে করছেন। এখন তাঁর ছেলে-মেয়েরা শান্তিতে পড়াশোনা করতে পারবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। তিনি আরও বলেন, এই বাড়ি তাঁর নিজস্ব, এখন এটা ভেবেই গর্ববোধ হচ্ছে।

কেরলের কোল্লাম থেকে রাধামনি দেবী জানান, এখন তাঁর পুরো পরিবার একসঙ্গে এক বাড়িতেই থাকার সুযোগ পেয়েছে, যা তাঁর কাছে অন্ত্যন্ত সন্তুষ্টির বিষয়। কেরলের আলাপ্পুঝা থেকে সুফলভোগী সুমা দেবী জানিয়েছেন, আগে তাঁরা সকলে এক কামরার ঘরে বাস করতেন। এখন এই কর্মসূচির ফলে তাঁরা নিজেদের স্বপ্নের বাড়ি বানাতে সক্ষম হয়েছেন।

‘আজাদি কা অমৃত মহোৎসব’-এর অঙ্গ হিসেবে ‘লাভার্থীয় সে রুবারূ’ মতবিনিময় কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে এ ধরনের মতবিনিময় অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়ে আসছে। আজকের এই মতবিনিময় অনুষ্ঠান ছিল ২২তম। উল্লেখ করা যেতে পারে, ‘প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা (শহরাঞ্চল)’ কর্মসূচি সাত বছর ধরে রূপায়িত হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত মন্ত্রক ১ কোটি ১৪ লক্ষের বেশি বাড়ি নির্মাণে অনুমতি দিয়েছে। এর মধ্যে ৯৩ লক্ষ ২৫ হাজার বাড়ি নির্মাণের কাজ চলেছে এবং ৫৪ লক্ষ ৭৮ হাজারের বেশি বাড়ির কাজ শেষ হওয়ার পর তা সুফলভোগীদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। 

 

CG/BD/DM/



(Release ID: 1799218) Visitor Counter : 71


Read this release in: English , Urdu , Hindi , Tamil