আদিবাসীবিষয়কমন্ত্রক

আদিবাসী বিষয়ক মন্ত্রক এবং সেন্ট্রাল বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন, সিবিএসই, যৌথভাবে একলব্য মডেল রেসিডেন্সিয়াল স্কুল এবং সিবিএসই শিক্ষকদের জন্য একবিংশ শতকে পরীক্ষামূলক শিক্ষা বিষয়ে একটি অনলাইন সার্টিফিকেট পাঠক্রম চালু করেছে


এই সার্টিফিকেট পাঠক্রমটি জাতীয় শিক্ষানীতি-২০২০'র লক্ষ্য অর্জনের জন্য শিক্ষাবিদদের সক্ষমতা বিকাশের প্রচেষ্টা

Posted On: 20 NOV 2021 6:06PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ২০ নভেম্বর, ২০২১

আজাদী কা অমৃত মহোৎসবের অঙ্গ হিসেবে আজ, ২০ নভেম্বর আদিবাসী বিষয়ক মন্ত্রকের সচিব শ্রী অনিল কুমার ঝাঁ এবং সেন্ট্রাল বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন, সিবিএসই'র চেয়ারম্যান শ্রী মনোজ আহুজা আজ যৌথভাবে একবিংশ শতকে পরীক্ষামূলক শিক্ষা বিষয়ে একটি অনলাইন পাঠ্যক্রমের সূচনা করেছেন। এটি একলব্য মডেল রেসিডেন্সিয়াল স্কুল এবং সিবিএসই'র শিক্ষকদের জন্য করা হয়েছে। এর জন্য সহায়তা করেছে টাটা ট্রাস্ট, সেন্টার অফ এক্সেলেন্স ইন টিচার এডুকেশন, মুম্বাইয়ের টাটা ইনস্টিটিউট অফ সোশাল সায়েন্সেস এবং আমেদাবাদের মহাত্মা গান্ধী ইন্টারন্যাশনাল স্কুল।
এই পাঠক্রমের সঙ্গে ৬ টি রাজ্যের ৩৫০ জন শিক্ষককে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। আজকের অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ন্যাশনাল এডুকেশন সোসাইটি ফর ট্রাইবাল স্টুডেন্টস-এর কমিশনার শ্রী অসিত গোপাল, আদিবাসী বিষয়ক মন্ত্র কে ডক্টর নাভাল জিৎ কাপুর এবং টাটা ট্রাস্ট- এর পক্ষে মিস্টার আর পবিত্র কুমার।
এই পাঠ্যক্রমের যোগদানকারী শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে আদিবাসী বিষয়ক মন্ত্রকের সচিব অনিল কুমার ঝাঁ বলেন, শিক্ষকদের তাঁদের নিজস্ব প্রেক্ষাপট এবং বাস্তব জীবনের অভিজ্ঞতার সাথে আদিবাসী শিক্ষার্থীদের সংযোগ স্থাপনের ক্ষেত্রে সহায়তা করার জন্য এই ধরনের পরীক্ষা মূলক শিক্ষার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন যে, একলব্য মডেল রেসিডেন্সিয়াল স্কুলে পাঠরত আদিবাসী ছাত্র-ছাত্রীরা যদিও প্রথম প্রজন্মের শিক্ষার্থী, তবে তাদের মধ্যেও সৃজনশীলতা অন্তর্নিহিত রয়েছে। সৃজনশীলতা থেকে শুরু করে নিজস্ব উদ্যোগ, ঝুঁকি নেওয়ার প্রবণতা সহ এমন কিছু বৈশিষ্ট্য যা তাদের স্বাভাবিক ভাবেই জীবনচক্রের সময় প্রকাশ পেয়েছে। তিনি জানান, এই ধরনের পাঠ্যক্রম আদিবাসী শিক্ষার বিস্তারের ক্ষেত্রে ব্যাপক কাজে আসবে এবং ভবিষ্যতে শিক্ষার্থীদের ওপর তার প্রভাব ফেলবে।
একবিংশ শতাব্দীর জন্য পরীক্ষা মূলক শিক্ষা পাঠক্রমটি একটি অনলাইন সার্টিফিকেট পাঠক্রম হিসেবে ধারণা করা হয়েছে। এটি শিক্ষক, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং অধ্যক্ষদের ক্লাসরুমে শেখানোর বাস্তব জীবনের অভিজ্ঞতার সাথে খাপ খাইয়ে নিতে সহায়তা করবে। এই সার্টিফিকেট পাঠক্রম এর জন্য ৬৫০ জন শিক্ষাবিদ আবেদন করেছিলেন। এরমধ্যে ৩৫০ জনকে ডিজিটাল লিটারেসি, ইংরেজিতে বলার স্বাচ্ছন্দ এবং শেখার ক্ষেত্রে তাঁদের অনুপ্রেরণার ভিত্তিতে নির্বাচিত করা হয়েছে। এই পাঠক্রমটি ২০ নভেম্বর, ২০২১ থেকে সমস্ত নির্বাচিত শিক্ষক এবং অধ্যক্ষকে বিনামূল্যে দেওয়া হবে। নির্বাচিত শিক্ষকরা আদিবাসী মন্ত্রক কর্তৃক স্বীকৃত 'টিচার লিডার্স' হিসেবে গণ্য হবেন। পর্যাক্রমে তাঁরা একলব্য মডেল স্কুলের অন্যান্য শিক্ষকদের সহায়তা করবেন। এই পাঠক্রমটি একবিংশ শতকের শিক্ষা ক্ষেত্রে দক্ষতা এবং শিক্ষার্থীদের উপযুক্ত ভাবে গড়ে তোলার জন্য সহায়তা করবে।
এই সার্টিফিকেট পাঠক্রমটি হবে মোট ছয় সপ্তাহের। থাকবে চারটি মডিউলস। এই পাঠক্রমটি শিক্ষকদের মধ্যে এমন ধারণা এবং কৌশল গুলির সাথে ক্ষমতায়ন করবে যা তাঁদের শেখার প্রক্রিয়াটিকে আরও অর্থবহ করে তুলবে। বাস্তব জীবনের সাথে সংযোগ স্থাপনে সহায়তা করবে। এর পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের মধ্যে সৃজনশীলতা, যোগাযোগ এবং সহযোগিতা মূলক দক্ষতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করবে।
এই সার্টিফিকেট পাঠক্রম টির স্বতন্ত্রতার প্রশংসা করে সেন্ট্রাল বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন এর চেয়ারম্যান শ্রী মনোজ আহুজা পাঠক্রম শিক্ষার্থীদের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগানোর বিষয়টি উল্লেখ করে বলেন যে, শেখা মানুষের জীবনের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। তিনি জোরের সঙ্গে বলেন, 'শিশুরা স্বাভাবিকভাবেই কৌতুহলী হয় এবং শিক্ষা সব সময় তাদের এগিয়ে নিয়ে যায়'। শ্রী আহুজা একটি ইকোসিস্টেম গড়ে তোলার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্ব দেন, যেখানে শিশুদের কৌতূহল এবং অভিজ্ঞতা গুলি ভবিষ্যৎ বিপ্লবের দিকে নিয়ে যাওয়ার পথ খুঁজে পায়।
কমিশনার শ্রী অসিত গোপাল তার স্বাগত ভাষণে বলেন, এটা অত্যন্ত দৃষ্টান্তমূলক যে জাতীয় ক্ষেত্রে শীর্ষ সংস্হা যেমন, সেন্ট্রাল বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন, টাটা ট্রাস্ট, সেন্টার অফ এক্সেলেন্স ইন টিচার এডুকেশন, এবং টাটা ইনস্টিটিউট অফ সোশ্যাল সায়েন্সেস ও মহাত্মা গান্ধী ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এর সাথে একত্রিতভাবে হাত মিলিয়েছে যা জাতীয় শিক্ষানীতি-২০২০'র চেতনাকে উদ্বুদ্ধ করবে। তিনি বলেন, আদিবাসী বিষয়ক মন্ত্রকের পক্ষ থেকে দেশের আদিবাসী অধ্যুষিত অঞ্চলে তাঁদের সন্তানদের জন্য শিক্ষার আলো পৌঁছে দিতে পশ্চিমাঞ্চলে আরও ৭৪০ টি একলব্য মডেল রেসিডেন্সিয়াল স্কুল স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।


CG/ SB



(Release ID: 1773703) Visitor Counter : 180


Read this release in: English , Urdu , Hindi , Punjabi