আদিবাসীবিষয়কমন্ত্রক

ট্রাইফেড এবং বিগ বাস্কেটের মধ্যে সমঝোতাপত্র স্বাক্ষরের মাধ্যমে ট্রাইবস ইন্ডিয়া বন ধন অনলাইন মার্কেটিং-এর প্রসারে উদ্যোগী হয়েছে
ঝাড়খন্ডের পূর্তি অ্যাগ্রোটেকের সঙ্গে ট্রাইফেডের সমঝোতাপত্র স্বাক্ষরের ফলে দেশজুড়ে আদিবাসীদের মুক্ত চাষের সুযোগ তৈরি হল

Posted On: 20 SEP 2021 4:37PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লী, ২০  সেপ্টেম্বর, ২০২১

 

        কেন্দ্রীয় উপজাতি বিষয়ক মন্ত্রী শ্রী অর্জুন মুন্ডা আদিবাসীদের জীবন-জীবিকার মানোন্নয়নে ট্রাইফেডের সঙ্গে বিগ বাস্কেট ও ঝাড়খন্ডের পূর্তি অ্যাগ্রোটেকের দুটি সমঝোতাপত্র স্বাক্ষরের অনুষ্ঠানে বলেছেন, সরকার আদিবাসীদের জীবন-জীবিকার মানোন্নয়নে সচেষ্ট। আজাদি কা অমৃত মহোৎসব উদযাপনের মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর উদ্দেশ্য হল সমাজের প্রান্তিক স্তরের মানুষের কাছে সমস্ত সুযোগ-সুবিধা পৌঁছে দেওয়া,  যার মাধ্যমে আত্মনির্ভর ভারত অভিযান সফল হবে। আদিবাসী বিষয়ক মন্ত্রক এবং ট্রাইফেড আদিবাসীদের জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন ও অর্থনৈতিক ক্ষমতায়ণের জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

        বন ধন উৎপাদিত প্রাকৃতিক নানান সামগ্রী বিগ বাস্কেটের মাধ্যমে বিক্রির জন্য ট্রাইফেড ও বিগ বাস্কেট সমঝোতাপত্র স্বাক্ষর করেছে। আদিবাসী শিল্পোদ্যোগীদের মুক্ত চাষে সহযোগিতা করতে পূর্তি অ্যাগ্রোটেকের সঙ্গে ট্রাইফেড আর একটি সমঝোতাপত্র স্বাক্ষর করেছে। এর ফলে আদিবাসী কারিগড় ও হস্তশিল্পীরা তাদের উৎপাদিত সামগ্রী বিপণনের নতুন সুযোগ পাবেন। ‘মেরা বন- মেরা ধন- মেরা উদ্যম’ এই উদ্যোগের মাধ্যমে আদিবাসী জনগোষ্ঠীর মানুষদের অপ্রকাশিত প্রতিভা এবং তাদের সম্ভাবনাকে খুঁজে বের করে কাজে লাগানো হবে যাতে তাঁদের দক্ষতা ও শিল্পকর্ম যথাযথভাবে কাজে লাগানো যায়।

        ট্রাইফেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর শ্রী প্রবীর কৃষ্ণ সমঝোতাপত্র স্বাক্ষরের পর বলেন দোসরা অক্টোবর থেকে এগুলি কার্যকর হবে। এর সুফল আদিবাসী জনগোষ্ঠীর মানুষের জীবনের ওপর পরবে। ট্রাইফেড বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে নানা চুক্তিতে আবদ্ধ হচ্ছে,  যার মূল উদ্দেশ্য আদিবাসী জনগোষ্ঠী মানুষদের জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন ঘটানো। প্রাকৃতিক নানা সম্পদকে বিগ বাস্কেটের মাধ্যমে বিপণনের ফলে তাদের উৎপাদিত সামগ্রী সহজেই বিক্রি করা যাবে।

 

 

CG/CB/NS



(Release ID: 1756574) Visitor Counter : 37


Read this release in: English , Urdu , Hindi , Tamil