প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর

ভারতীয় নাগরিক সুরক্ষা সংহিতা, ২০২৩, ভারতীয় ন্যায় সংহিতা, ২০২৩ এবং ভারতীয় সাক্ষ্য অধিনিয়ম, ২০২৩-এর পথ উন্মুক্ত, আমাদের ইতিহাসে এ এক সন্ধিক্ষণঃ প্রধানমন্ত্রী

নাগরিক সেবা ও কল্যাণকর্ম কেন্দ্রিক আইন সমূহ সহ নতুন যুগের সূচনাঃ প্রধানমন্ত্রী

Posted On: 22 DEC 2023 11:27AM by PIB Agartala

নয়াদিল্লি, ২২ ডিসেম্বর ২০২৩।। প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী সংসদে ভারতীয় নাগরিক সুরক্ষা সংহিতা, ২০২৩, ভারতীয় ন্যায় সংহিতা, ২০২৩ এবং ভারতীয় সাক্ষ্য অধিনিয়ম, ২০২৩-এর পথ উন্মুক্ত হওয়ার বিষয়টিকে উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করলেন এবং এটাকে ভারতীয় ইতিহাসে  এক ঐতিহাসিক মূহূর্ত বলে অবিহিত করলেন। তিনি গুরুত্ব দিয়ে দৃঢ়তার সংগে বললেন, এইসব বিল একদিকে যেমন সমাজের গরিব, প্রান্তিক ও দুস্থ অংশের জন্য সুরক্ষার বিস্তারকে সুনিশ্চিত করবে, তেমনি অন্যদিকে সংঘঠিত অপরাধ, সন্ত্রাসবাদ এবং এ ধরণের অন্যান্য অপরাধগুলির মাথায়ও বাজ হয়ে ভেঙে পড়ছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, এইসব আইন সংক্রান্ত সংস্কার এটাকেই আরোও একবার সংজ্ঞয়িত করছে যে ‘অমৃত কাল’-এ ভারতের আইনগত কর্মকাঠামো আরো বেশি প্রাসঙ্গিক ও সহানোভূতিশীল হয়ে উঠবে। পাশাপাশি তিনি রাজ্যসভায় তিনটির বিলের বিষয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ যে আলোচনা করছেন সেই দৃশ্যটির ভিডিও ভাগ করে নিয়েছেন।  

 প্রধানমন্ত্রী এক্স-এ এক গুচ্ছ পোস্ট করে বলেছেন:

“ভারতীয় নাগরিক সুরক্ষা সংহিতা, ২০২৩, ভারতীয় ন্যায় সংহিতা, ২০২৩ এবং ভারতীয় সাক্ষ্য অধিনিয়ম, ২০২৩-এর পথ উন্মুক্ত, আমাদের ইতিহাসে এ এক সন্ধিক্ষণ। এইসব বিল ঔপনিবেশিক যুগের সমাপ্তিকে চিহ্নিত করছে। নাগরিক সেবা ও কল্যাণকর্ম কেন্দ্রিক আইন সমূহ সহ নতুন যুগের সূচনা হয়েছে।

এইসব রূপান্তরকারী বিল সংস্কারের লক্ষ্যে ভারতের  প্রতিশ্রুতিবদ্ধতার এক উজ্জ্বল প্রমাণ। এগুলি প্রযুক্তি ও ফরেনসিক বিজ্ঞানের উপর গুরুত্বদান সহ আমাদের আইনি, পুলিশ সম্পর্কিত, ও তদন্ত বিষয়ক ব্যবস্থায় অধুনিক যুগ নিয়ে এসেছে। এইসব বিল আমাদের সমাজের গরিব, প্রান্তিক ও দুস্থ অংশের জন্য সুরক্ষার বিস্তারকে সুনিশ্চিত করবে।    

একই সংগে এইসব বিল সংঘঠিত অপরাধ, সন্ত্রাসবাদ এবং এ ধরণের অন্যান্য অপরাধ যেগুলি প্রগতির দিকে আমাদের শান্তিপূর্ণ অভিযাত্রার মূলে কঠোরভাবে আঘাত হানছে সেইসব অপকর্মের  মাথায়ও বাজ হয়ে ভেঙে পড়ছে। এইগুলির মাধ্যমে আমরা রাষ্ট্রদ্রোহ বিষয়ক তামাদি হয়ে যাওয়া আইনের অধ্যায়গুলিকেও আলবিদা  জানালাম।

এইসব আইন সংক্রান্ত সংস্কার এটাকেই আরোও একবার সংজ্ঞায়িত করছে যে ‘অমৃত কাল’-এ ভারতের আইনগত কর্মকাঠামো আরো বেশি প্রাসঙ্গিক ও সহানোভূতিশীল হয়ে উঠবে। এইসব বক্তব্য  স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী শ্রী অমিত শাহ জি এইসব বিলের মূল দিকগুলির বিষয়ে আরোও বিস্তারিতভাবে ব্যাখ্যা করেছেন।” 

***** 

SKC/SRC

 



(Release ID: 1989575) Visitor Counter : 112


Read this release in: English