স্বাস্থ্যওপরিবারকল্যাণমন্ত্রক

গাম্বিয়ায় শিশু মৃত্যুর ঘটনার সঙ্গে ভারত থেকে রপ্তানি করা ওষুধের কোনো যোগ রয়েছে কিনা তা পরীক্ষার জন্য ওষুধের নমুনা পাঠানো হল চণ্ডীগড়ের ল্যাবরেটরিতে

Posted On: 06 OCT 2022 6:32PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ৬ অক্টোবর ২০২২

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে এ বছর ২৯ সেপ্টেম্বর তারিখে ভারতের জাতীয় ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ডিসিজিআই-কে জানানো হয় যে গাম্বিয়ায় সম্প্রতি শিশু মৃত্যুর ঘটনায় প্রয়োজনীয় প্রযুক্তিগত সহায়তা ও পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে সংশ্লিষ্ট দেশটিকে। ওষুধে ডায়াথিলিন গ্লাইকল অথবা ইথাইলিন গ্লাইকল ব্যবহারের ফলে শিশু মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে বলে সন্দেহ প্রকাশ করা হয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কাছ থেকে বিষয়টি জানার পরে পরেই সিডিএসসিও-র পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হয় হরিয়ানার রাজ্য নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে। সোনেপতের মেসার্স মেইডেন ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেডের তৈরি ওষুধ গাম্বিয়ায় রপ্তানি করা হয়। সংস্থার তৈরি প্রমিথাজাইম ওরাল সলিউশন বিপি, কোফেক্সনালিন বেবি কাফ সিরাপ, ম্যাকফ বেবি কাফ সিরাপ এবং মাগ্রিপ অ্যান্ড কোল্ড সিরাপ – এই চারটি ওষুধ সংশ্লিষ্ট ওষুধ নির্মাতা সংস্থার থেকে রপ্তানি করা হয়েছিল গাম্বিয়ায়।

এই ধরনের ওষুধগুলি সাধারণত আমদানিকারক দেশটি যথাযথভাবে পরীক্ষার পরই রোগীদের জন্য ব্যবহারের পরামর্শ দিয়ে থাকে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বয়ান অনুযায়ী, ওষুধগুলির যে ২৩টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে তার মধ্যে চারটিতে ডায়াথিলিন গ্লাইকল অথবা ইথাইলিন গ্লাইকল-এর সন্ধান পাওয়া গেছে। এ সম্পর্কিত পরীক্ষানিরীক্ষার খুঁটিনাটি বিবরণ হাতে পাওয়ার পরই ভারতের ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তবে, শিশু মৃত্যুর ঘটনার সঙ্গে ঐ ওষুধগুলিতে ব্যবহৃত উপাদানগুলির কোনরকম সম্পর্ক আছে কিনা সে সম্পর্কে পরীক্ষানিরীক্ষার রিপোর্ট যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ভারতে পাঠানোর জন্য সিডিএসসিও-র পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, শুধুমাত্র মেসার্স মেইডেন ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেডকেই প্রমিথাজাইম ওরাল সলিউশন বিপি, কোফেক্সনালিন বেবি কাফ সিরাপ, ম্যাকফ বেবি কাফ সিরাপ এবং মাগ্রিপ অ্যান্ড কোল্ড সিরাপ – এই চারটি ওষুধ রপ্তানির অনুমতি দেওয়া হয়েছিল রাজ্যের ড্রাগ কন্ট্রোলারের পক্ষ থেকে। তবে এই চারটি ওষুধের কোনটিই ভারতের বাজারে ছাড়ার অনুমতি প্রস্তুতকারক সংস্থাটিকে দেওয়া হয়নি।

মেসার্স মেইডেন ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ঐ চারটি ওষুধের নমুনা সংগ্রহ করে সিডিএসসিও-র পক্ষ থেকে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে চণ্ডীগড়ের আঞ্চলিক ড্রাগ টেস্টিং ল্যাবরেটরিতে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং চণ্ডীগড়ের ঐ ল্যাবরেটরির রিপোর্ট হাতে আসার পরই পরবর্তী প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে সিডিএসসিও-র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

 
PG/SKD/DM



(Release ID: 1865869) Visitor Counter : 168


Read this release in: English , Urdu , Hindi