কৃষিমন্ত্রক

রাজ্যগুলির কৃষি পরিকাঠামো তহবিলের সুবিধা নেওয়া উচিত যাতে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের কাছে সেই সুবিধা পৌঁছাতে পারে, বলেছেন শ্রী নরেন্দ্র সিং তোমর

Posted On: 07 SEP 2021 5:53PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১

 

কৃষি ও কৃষক কল্যাণ মন্ত্রকের উদ্যোগ ও প্রকল্পের বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের দুদিনের সম্মেলনে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র সিং তোমর কৃষি পরিকাঠামো তহবিলের ওপর বিশেষ জোর দিয়েছেন।তিনি বলেছেন এতে  আগামীদিনে কৃষি ক্ষেত্রে বিনিয়োগ বৃদ্ধি পাবে । তিনি রাজ্যগুলিকে এই তহবিলের সুবিধা নেওয়ার জন্য আহ্বান জানান । কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী বলেন, এতে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের কাছে এই তহবিলের সুবিধা পৌঁছে দেওয়া সম্ভবপর হবে । ডিজিটাল কৃষি মিশন সম্পর্কে বলতে গিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানান, কৃষকদের সম্পর্কিত তথ্য সরকারের কাছে সম্পদ এবং দেশে যে কোন কর্মসূচি রূপায়ণ, নীতি প্রণয়ন এবং কৃষকদের কাছে সুবিধা পৌঁছে দেওয়ার ক্ষেত্রে এই তথ্য বিশেষ সাহায্য করে থাকে । ইতিমধ্যেই ৫.৫ কোটি কৃষক সম্পর্কিত তথ্য তৈরি করা হয়েছে । বাকিদের তথ্য যাচাইয়ের কাজ চলছে ।

শ্রী তোমর জানান যে, সম্প্রতি কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা উত্তর-পূর্বাঞ্চল এবং আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে পাম তেলের জন্য জাতীয় ভোজ্য তেল মিশন অনুমোদন করেছে । এর মাধ্যমে দেশে ভোজ্য তেলের উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে পাশাপাশি ভোজ্য তেলের আমদানিও হ্রাস পাবে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি । এই মিশন পাম তেল চাষীদের বিশেষ ভাবে উপকৃত করবে বলেও তিনি জানান । কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী বলেন, এতে মূলধন বিনিয়োগ বৃদ্ধি পাবে, কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে, আমদানির ওপর নির্ভরতা কমবে এবং কৃষকদের আয় বৃদ্ধি পাবে । বৈঠকে উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলি কেন্দ্রীয় সরকারের গৃহিত জাতীয় ভোজ্য তেল-পাম তেল মিশনের প্রশংসা করে । এই মিশন বাস্তবায়নে যথাযথ সহযোগিতা করা হবে বলেও মন্ত্রীকে আশ্বস্ত করা হয়েছে । 

শ্রী পীযূষ গোয়েল সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনের ভাষণে কেন্দ্রীয় সরকারের কৃষক কল্যাণে গৃহিত পদক্ষেপগুলির কথা তুলে ধরেন । তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার কৃষকদের ভবিষ্যত বদলাতে রাজ্য সরকারগুলির সঙ্গে সমন্বয় বজায় রেখে কাজ করে চলেছে । শ্রী গোয়েল আরও জানান, কৃষি ক্ষেত্রে সংস্কার সাধন করে দেশ আত্মনির্ভরতার পথে হেঁটেছে । কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করার ক্ষেত্রে একাধিক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন । ‘এক জেলা এক পণ্য’ সম্পর্কে বলতে গিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানান, ইতিমধ্যেই দেশের ১০৩টি জেলা থেকে ১০৬টি পণ্য চিহ্নিত করা হয়েছে । স্থানীয়দের উৎপাদিত পণ্য বিশ্বের বাজারে ছড়িয়ে দিতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান । অনুষ্ঠানে কৃষি ও কৃষক কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী, মন্ত্রকের অতিরিক্ত সচিব, একাধিক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ও কৃষি মন্ত্রীরা উপস্থিত ছিলেন । 

 

CG/SS/RAB



(Release ID: 1753016) Visitor Counter : 41


Read this release in: English , Urdu , Hindi , Punjabi