নারীওশিশুবিকাশমন্ত্রক

কৈশোর প্রাপ্তদের ন্যায়বিচার (শিশুদের যত্ন ও সুরক্ষা) সংশোধনী বিল ২০২১ সংসদে পাশ হয়েছে

Posted On: 28 JUL 2021 1:01PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ২৮ জুলাই, ২০২১

২০১৫ সালের কৈশোর প্রাপ্তদের ন্যায়বিচার আইন সংশোধন করে ‘কৈশোর প্রাপ্তদের ন্যায় বিচার(শিশুদের যত্ন ও সুরক্ষা) সংশোধনী বিল ২০২১’ আজ রাজ্যসভায় পাশ হয়েছে । চলতি বছরের বাজেট অধিবেশনে সরকার সংসদে এই বিল পেশ করে । এবছরের ২৪-শে মার্চ লোকসভায় এই বিল পাশ হয় ।
এই বিলের বিষয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রী শ্রীমতি স্মৃতি জুবিন ইরানি বর্তমান ব্যবস্থাপনায় যে খামতি রয়েছে, তা দূর করে দুর্বল শিশুদের যত্ন ও সুরক্ষার বিষয়ে জেলা শাসকদের ওপর ন্যাস্ত দায়িত্বের গুরুত্বের ওপর জোর দেন । সব কিছুর ঊর্ধ্বে ভারতীয় শিশুদের সুরক্ষা ও যত্নের বিষয়ে সংসদ প্রতিশ্রুদিবদ্ধ বলেও উল্লেখ করেন তিনি ।
এই সংশোধনীর মাধ্যমে অতিরিক্ত জেলাশাসক সহ জেলাশাসক কৈশোর প্রাপ্তদের ন্যায়বিচার আইনের ৬১ নম্বর ধারার আওতায় দত্তক গ্রহণ সংক্রান্ত আদেশনামা জারি করতে পারবেন।এর ফলে বিভিন্ন মামলার দ্রুত নিষ্পত্তি হবে এবং দায়বদ্ধতা বৃদ্ধি পাবে।এমনকি এই আইনের আওতায় কঠিন পরিস্থিতির সম্মুখীন শিশুদের সহায়তা করার জন্য জেলাশাসকদের হাতে আরও ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। এতে এই আইনটি সুষ্ঠুভাবে প্রয়োগ সুনিশ্চিত করবে। সংশোধিত আইন অনুযায়ী জেলাশাসকের সুপারিশ বিবেচনা করে দেখার পরে যে কোন 'শিশু যত্ন প্রতিষ্ঠান' নথিভুক্ত হবে । জেলা শিশু সুরক্ষা বিভাগ, শিশু কল্যাণ কমিটি, কৈশোর প্রাপ্তদের জন্য ন্যায়বিচার পর্ষদ, কৈশোর প্রাপ্তদের জন্য বিশেষ পুলিশ বিভাগ, শিশু যত্ন প্রতিষ্ঠানের কাজ স্বাধীন ভাবে মূল্যায়ণ করবে জেলাশাসক ।
এই সংশোধিত আইনে শিশু কল্যাণ কমিটির সদস্যদের নিয়োগের জন্য যোগ্যতার মাপকাঠি নতুন ভাবে তুলে ধরা হয়েছে ।এমনকি শিশু কল্যাণ কমিটির সদস্যদের জন্য যোগ্যতার মানদন্ড নির্ধারণ করা হয়েছে, যাতে কেবলমাত্র যোগ্য, দক্ষ ব্যক্তিরাই এই কমিটির সদস্য হতে পারেন ।
কৈশোর প্রাপ্তদের ন্যায়বিচার (শিশুদের যত্ন ও সুরক্ষা) আইন ২০১৫-এর আওতায় বিভিন্ন নিয়মের ব্যাখ্যায় উদ্ভূত সমস্যাগুলি দূর করার জন্য এবং এই আইনের ক্ষেত্রে একটি স্বচ্ছতা নিয়ে আসতে সংশোধিত এই নতুন আইন পাশ করানো হয়েছে ।

CG/SS/RAB



(Release ID: 1740239) Visitor Counter : 271


Read this release in: English