প্রতিরক্ষামন্ত্রক

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী শ্রী রাজনাথ সিং সড়ক নির্মাণ ও পথ নিরাপত্তার বিষয়ে উৎসাহদানে বিআরও-র দুটি উৎকর্ষতা কেন্দ্রের উদ্বোধন করেছেন

Posted On: 11 JUN 2021 5:58PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ১১ জুন, ২০২১

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী শ্রী রাজনাথ সিং আজ নতুন দিল্লির সীমা সড়ক ভবনে সীমান্ত সড়ক সংস্থা (বিআরও)-এর প্রতিষ্ঠিত দুটি উৎকর্ষতা কেন্দ্র জাতির উদ্দেশে উৎসর্গ করেছন। এই কেন্দ্রগুলি পথ নিরাপত্তার পাশাপাশি সড়ক, সেতু, বিমানবন্দর এবং সুরঙ্গ নির্মাণের ক্ষেত্রে উৎকর্ষতা লক্ষ্য অর্জনে অন্যতম কেন্দ্র হিসেবে কাজ করবে। পথ নিরাপত্তা ও সচেতনতার জন্য উৎকর্ষতা কেন্দ্রের মূল লক্ষ্যই হলো সড়ক দুর্ঘটনার কারণ বিশ্লেষণ করে মূল্যবান জীবন রক্ষা করার পাশাপাশি পথ নিরাপত্তা সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সচেতন করে তোলা। পূর্ব এবং উত্তর পশ্চিম ভারতে এই উৎকর্ষতা কেন্দ্র সড়ক, সেতু, বিমানবন্দর ও সুরঙ্গ নির্মাণে বিশেষ জোর দিয়েছে।
অনুষ্ঠানের ভাষণে শ্রী রাজনাথ সিং জানান, বিআরও মূল্যবান জীবন বাঁচাতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। এই উৎকর্ষ কেন্দ্রগুলির প্রতিষ্ঠার বিআরও-এর উচ্ছ্বসিত প্রশংসাও ব্যক্ত করেন তিনি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, সড়ক দুর্ঘটনা একটি নিঃশব্দ মহামারীর মত। প্রতি বছর প্রায় দেড় লক্ষ মানুষ প্রাণ হারন এর জেরে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জানান এই সমস্যা সমাধানের জন্য সরকার জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা নীতি, মটরযান আইন ২০২০-তে পরিবর্তন নিয়ে এসেছে। এমনকি জাতীয় মহাসড়কে দুর্ঘটনা প্রবণ জায়গাগুলিকে ব্ল্যাক স্পট হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।
প্রতিরক্ষা মন্ত্রী আরও বলেন, দুর্গম অঞ্চলে সড়ক সুরঙ্গ এবং অন্যান্য পরিকাঠামো নির্মাণের ক্ষেত্রে বিআরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। সীমান্ত অঞ্চলে যোগাযোগ ব্যবস্থা বৃদ্ধির জন্য অনুকূল আবহাওয়া পরিস্থিতির মধ্যেও বিআরও-এর কর্মীরা নিরলস প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছেন। এমনকি কোভিড-১৯ অতিমারীর কালেও কাজ জারি রেখেছেন। যোগাযোগ ব্যবস্থাপনাকে দেশের অগ্রগতির অপরিহার্য অঙ্গ হিসেবে বর্ণনা করে তিনি বলেন, বিআরও সশস্ত্র বাহিনীর প্রয়োজনীয়তার পাশাপাশি সীমান্ত অঞ্চলের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে কাজ করে চলেছে। অটল সুরঙ্গ, রোহতাং, কৈলাশ-মানস সরোবর সড়ক এবং জোজিলা পাস-এর মতো অত্যাধুনিক সড়ক নির্মাণ ক্ষেত্রে বিআরও কৃতিত্বের পরিচয় রেখেছে।
শ্রী রাজনাথ সিং বিআরও-এর উন্নয়নে সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপের কথাও উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, বিআরও-এর ক্ষেত্রে বাজেট বরাদ্দ বৃদ্ধি করা হয়েছে, কর্মীদের জন্য অত্যাধুনিক পোশাক প্রদান করা হয়েছে। তিনি বলেন, সরকার দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের অগ্রগতিতে বদ্ধ পরিকর। বিআরও কর্মীরা সেই কাজই করে চলেছেন।
অনুষ্ঠানে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বিআরও কর্মীদের কাজের দক্ষতা, মানব সম্পদ পরিচালনা, নিয়োগ ব্যবস্থাপনা, কাজ পরিচালনা ইত্যাদির জন্য চারটি সফটওয়ার চালু করেন। শ্রী সিং বলেন, এই সফটওয়ারগুলি ‘আত্মনির্ভর ভারত’ এবং ‘ডিজিটাল ভারত’-এর অন্যতম উদাহরণ। অনুষ্ঠান শুরুর পূর্বে সীমান্ত সড়ক সংস্থার মহানির্দেশক লেফটেন্যান্ট জেনারেল রাজীব চৌধুরী সাম্প্রতিক বছরে বিআরও-র সাফল্য এবং উদ্যোগের বিষয়গুলি সম্পর্কে কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে বিস্তারিত ব্যাখ্যা দেন। পাশাপাশি তিনি বর্তমান নির্মাণাধীন প্রকল্পগুলির ক্ষেত্রে আত্মনির্ভর ভারতের ওপর বিশেষ জোর দেওয়া হয়েছে বলেও শ্রী সিং-কে জানান। এদিনের অনুষ্ঠানে চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত ও প্রতিরক্ষা সচিব ডঃ অজয় কুমার উপস্থিত ছিলেন।

CG/SS/SKD



(Release ID: 1726282) Visitor Counter : 24


Read this release in: English