অর্থমন্ত্রক

দ্রুত দাবিদাওয়া নিষ্পত্তির জন্য বিমা সংস্থাগুলির প্রধানদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী শ্রীমতী নির্মলা সীতারামন

Posted On: 05 JUN 2021 7:32PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ৫ জুন, ২০২১

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী শ্রীমতী নির্মলা সীতারমন আজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী গরীব কল্যাণ প্যাকেজ বিমা কর্মসূচির আওতায় কোভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যুক্ত স্বাস্থ্যকর্মীদের বিমার সুযোগ-সুবিধা পৌঁছে দেওয়ার কাজের অগ্রগতির বিভিন্ন দিক নিয়ে বিমা সংস্থার প্রধানদের সঙ্গে পর্যালোচনা বৈঠক করেন। মহামারীর সময় প্রধানমন্ত্রী জীবন জ্যোতি বিমা যোজানার আওতায় বকেয়া দাবি-দাওয়ার দ্রুত নিষ্পত্তিতে তিনি জোর দেন। শ্রীমতী সীতারমন বিমার দাবি-দাওয়া মেটানোর বিষয়টিতে গুরুত্ব দিয়ে প্রয়োজনীয় নথিপত্র দ্রুত যাচাই করে তা অবিলম্বে মিটিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন।
এই পর্যালোচনা বৈঠকে অর্থমন্ত্রীকে জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রী গরীব কল্যাণ প্যাকেজের বিমা কর্মসূচির আওতায় ৪১৯টি দাবি-দাওয়ার সঙ্গে যুক্ত ২০৯ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা মিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যগুলির পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় নথিপত্র পাঠাতে বিলম্বের দরুন উদ্ভূত সমস্যার সমাধানে অর্থমন্ত্রী নতুন একটি ব্যবস্থা গড়ে তোলার পরামর্শ দেন। এই ব্যবস্থার মাধ্যমে জেলা শাসক এবং রাজ্যের নোডাল স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে পাওয়া সার্টিফিকেট অনুযায়ী দ্রুত বকেয়া মেটানো সম্ভব। বিমা সংস্থা নিউ ইন্ডিয়া অ্যাসুরেন্স কোম্পানীর ভূমিকার প্রশংসা করেন শ্রীমতী সীতারমন। এই প্রসঙ্গে তিনি জানান, সংস্থাটি লাদাখে একটি বকেয়া মাত্র ৪ ঘন্টার মধ্যে নিষ্পত্তি করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। এই ধরণের উদ্যোগ ভবিষ্যতেও জারি থাকা প্রয়োজন বলে তিনি অভিমত প্রকাশ করেন। অর্থমন্ত্রী রাজ্যগুলিকে স্বাস্থ্যকর্মীদের কোভিড জনিত মৃত্যুর ক্ষেত্রে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে তাদের প্রাপ্য দাবি-দাওয়া দ্রুত মিটিয়ে দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় পদ্ধতি সরল করার নির্দেশ দেন।
বৈঠকে অর্থমন্ত্রীকে জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রী জীবন জ্যোতি বিমা যোজনার আওতায় ২০২০-র পয়লা এপ্রিল মহামারীর সূচনার সময় থেকে ৪ লক্ষ ৬৫ হাজার দাবি-দাওয়ার ক্ষেত্রে ৯ হাজার ৩০৭ কোটি টাকা মিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। এর প্রেক্ষিতে অর্থমন্ত্রী বিমা সংস্থাগুলিকে প্রাপ্য দাবি-দাওয়া মিটিয়ে দেওয়ার জন্য আরও সংবেদনশীল হওয়ার পরামর্শ দেন। প্রধানমন্ত্রী স্বাস্থ্য বিমা যোজনার আওতায় দাবি-দাওয়ার নিষ্পত্তির বিষয়েও অর্থমন্ত্রী খোঁজ-খবর নেন। এপ্রসঙ্গে তাঁকে জানানো হয়, গত ৩১ মে পর্যন্ত ৬২ হাজার ৬৬০টি দাবি-দাওয়ার প্রেক্ষিতে ১ হাজার ৬২৯ কোটি টাকা বিমা-ধারকদের মিটিয়ে দেওয়া হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী জীবন জ্যোতি বিমা যোজনা এবং প্রধানমন্ত্রী স্বাস্থ্য বিমা যোজনার আওতায় মহামারীর সময় দাবি-দাওয়ার দ্রুত নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে যে সমস্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে শ্রীমতী সীতারমন তার প্রশংসা করেন। এর ফলে, বিমা সংস্থাগুলি ৩০ দিনের পরিবর্তে কেবল ৭ দিনেই দাবি-দাওয়া নিষ্পত্তির ব্যাপারে সক্রিয় হয়েছে। এমনকি, দাবি-দাওয়ার সঙ্গে যুক্ত নথিপত্রগুলি ই-মেল/অ্যাপের মাধ্যমে গ্রহণ করা হচ্ছে। রাষ্ট্রায়ত্ব ক্ষেত্রের বিমা সংস্থাগুলি চলতি মাস থেকে দাবি-দাওয়া মেটানোর ক্ষেত্রে এপিআই-ভিত্তিক অ্যাপ চালু করতে চলেছে। এছাড়াও, শীঘ্রই বিমার দাবি-দাওয়া সম্পর্কিত ফর্ম পূরণ প্রক্রিয়া আরও সরল করা হচ্ছে। এই ব্যবস্থাগুলির ফলে প্রয়াত বিমাধারক ব্যক্তির নমিনি দ্রুত প্রাপ্য অর্থ হাতে পাবেন এবং আর্থিক দিক থেকে তার কিছুটা রেহাই মিলবে।

CG/BD/AS



(Release ID: 1724771) Visitor Counter : 185


Read this release in: English