শিল্পওবাণিজ্যমন্ত্রক

বৈদেশিক বাণিজ্য নীতি (২০১৫-২০) আরও এক বছর বাড়ানো হ’ল

Posted On: 31 MAR 2020 10:57PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ৩১ মার্চ, ২০২০

 

 


কেন্দ্রীয় বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রক আজ সরকারের বৈদেশিক বাণিজ্য নীতিতে পরিবর্তনের কথা ঘোষণা করেছে। উল্লেখ করা যেতে পারে, বর্তমান বৈদেশিক বাণিজ্য নীতি পাঁচ বছর মেয়াদের জন্য ২০১৫’র পয়লা এপ্রিল থেকে কার্যকর হয়েছিল। এই নীতির মেয়াদ উত্তীর্ণর সময় ছিল ২০২০’র ৩১শে মার্চ। কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে উদ্ভূত বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করে কেন্দ্রীয় সরকার বিভিন্ন রপ্তানি প্রসার কর্মসূচির আওতায় প্রদেয় ছাড় আরও এক বছর অর্থাৎ ২০২১ সালের ৩১শে মার্চ পর্যন্ত বজায় রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বাণিজ্য ও শিল্প সংস্থাগুলিকে সহায়তার জন্য আরও কিছু ছাড় দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। বৈদেশিক বাণিজ্য নীতিতে পরিবর্তন সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি বৈশিষ্ট্য হল :


বর্তমান বৈদেশিক বাণিজ্য নীতির ছাড়-সুবিধা এক বছর বাড়িয়ে ৩১শে মার্চ পর্যন্ত করা হয়েছে।


অন্যান্য যাবতীয় রপ্তানি ও তার কর্মসূচিগুলির সুবিধা আরও এক বছর বাড়ানো হয়েছে।


স্ট্যাটস হোল্ডার সার্টিফিকেটের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। এর ফলে, স্ট্যাটাস হোল্ডারদের নির্দিষ্ট কিছু সুযোগ-সুবিধা বজায় থাকবে।


অ্যাডভান্স বা ইপিসিজি অথরাইজেশনের আওতায় আমদানির ওপর আইজিএসটি এবং কমপেনসেশন সংক্রান্ত শুল্ক এক বছর ছাড় দেওয়া হয়েছে।


শুল্ক মুক্ত আমদানি ব্যবস্থার আওতায় আমদানির সময়সীমা বাড়িয়ে আগামী ৩১শে জুলাই পর্যন্ত করা হয়েছে।


বিভিন্ন ধরনের অথরাইজেশনের আওতায় রপ্তানির সময়সীমা ছ’মাস বাড়ানো হয়েছে।


বিভিন্ন ধরনের ডিউটি ক্রেডিট স্ক্রিপস্ – এর জন্য আবেদনের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে।


লেটার অফ ইন্টেন্ট সংক্রান্ত বিষয়ে মেয়াদ বাড়িয়ে আগামী ৩১শে ডিসেম্বর পর্যন্ত করা হয়েছে।


পরিবহণ, বিপণন ও ড্র-ব্যাক সংক্রান্ত রিফান্ডের জন্য আবেদনপত্র জমা দেওয়ার সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে।


বৈদেশিক বাণিজ্য নীতির আওতায় বিভিন্ন ধরনের রিপোর্ট বা রিটার্ন সংক্রান্ত আবেদনপত্র দাখিলের সময়সীমা বৃদ্ধি করা হয়েছে।

 

 


CG/BD/SB



(Release ID: 1609835) Visitor Counter : 125


Read this release in: English