সংখ্যালঘুবিষয়কমন্ত্রক

ওয়াকফ সম্পত্তির বেআইনি দখলদারি

Posted On: 19 JUL 2018 11:34AM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ৮ জুলাই ২০১

১৯৯৫ সালে সংশোধিক ওয়াকফ আইনের ধারা অনুযায়ী, একটি রাজ্যে সমস্ত ওয়াকফ সম্পত্তির দেখভালের দায়িত্ব রাজ্য ওয়াকফ বোর্ডের হাতে ন্যস্ত হয়েছে। বোর্ডের হাতে এই সমস্ত সম্পত্তির বেআইনি দখলদারি রুখতে উপযুক্ত আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া, আইনের দুটি ধারানুযায়ী, দখলদারদের ওয়াকফ সম্পত্তি থেকে উচ্ছেদের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণের ক্ষমতাও দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে তাই কোনও বিস্তারিত তথ্য রাখে না।

১৯৯৫ সালে সংশোধিত ওয়াকফ আইনে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের ওয়াকফ বোর্ডগুলির হাতে পর্যাপ্ত ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া, রাজ্য সরকারগুলিকে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ওয়াকফ সম্পত্তি সংক্রান্ত সমীক্ষা সম্পূর্ণ করতে কমিশনার নিয়োগের ক্ষমতাও দেওয়া হয়েছে। আইনটিতে ওয়াকফ বোর্ডের পূর্ব অনুমতি ছাড়া এই ধরণের সম্পত্তির বেআইনি দখলদারির জন্য সশ্রম কারাদন্ডের সংস্থান রাখা হয়েছে। এই আইন লঙ্ঘনের কাজকে জামি অযোগ্য অপরাধ হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। ওয়াকফ সম্পত্তি সংক্রান্ত বিরোধ নিষ্পত্তিকল্পে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল গঠনের সংস্থান রাখা হয়েছে। এই আইনগুলি যথাযথভাবে রূপায়ণ করা হচ্ছে কিনা কেন্দ্রীয় সরকার মাঝে মাঝে সে বিষয়ে নজরদারি চালিয়ে থাকে। কেন্দ্রীয় সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রী শ্রী মুক্তার আব্বাস নাকভি আজ লোকসভায় এক প্রশ্নের লিখিত জবাবে এই তথ্য প্রকাশ করেছেন।

 

CG/PB/SB…



(Release ID: 1539192) Visitor Counter : 15


Read this release in: English