কেন্দ্রীয়মন্ত্রিসভা

জন প্রশাসনের পুনর্গঠন এবং প্রশাসনিক সংস্কারের জন্য ভারত ও গাম্বিয়ার মধ্যে স্বাক্ষরিত সমঝোতাপত্রটিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার অনুমোদন

Posted On: 30 JUN 2021 8:55PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লী, ৩০ জুন, ২০২১

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর পৌরহিত্যে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে ভারতের কর্মী, জন-অভিযোগ ও পেনশন মন্ত্রকের প্রশাসনিক সংস্কার ও জন-অভিযোগ দপ্তর এবং গাম্বিয়ার রাষ্ট্রপতির দপ্তরের পাবলিক সার্ভিস কমিশনের মধ্যে যে সমঝোতাপত্র স্বাক্ষরিত হয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা তাতে অনুমোদন দিয়েছে। জন প্রশাসনের পুনর্গঠন এবং প্রশাসনিক সংস্কার এই সমঝোতার মূল উদ্দেশ্য।
প্রভাব
এই সমঝোতাপত্রের ফলে দুটি দেশের জন প্রশাসনের বিষয়ে পারস্পরিক বোঝাপড়া দৃঢ় হবে। উভয় দেশের মধ্যে প্রশাসনিক কাজকর্মের যে পদ্ধতিগুলি ভালো সেগুলিকে গ্রহণ করে জন প্রশাসনিক ব্যবস্থার উন্নতি ঘটানো হবে।
আর্থিক প্রভাব
এই সমঝোতাপত্র বাস্তবায়নের জন্য প্রত্যেকটি দেশ নিজ নিজ ব্যয়ভার বহন করবে। সমঝোতাপত্রে বলা হয়েছে, পুরো কর্মসূচীর ব্যয়, চুক্তি অনুযায়ী নানা ধরণের কাজের ওপর নির্ভর করবে।
বিস্তারিত তথ্য
এই সমঝোতাপত্রের মাধ্যমে যেসব ক্ষেত্রে সহযোগিতা গড়ে উঠবে সেগুলি হল-
ক) সরকারের পরিচালন ব্যবস্থাপনার উন্নয়ন
খ) স্বতঃপ্রণোদিত পেনশন প্রকল্পের বাস্তবায়ন
গ) সরকারী কাজে বৈদ্যুতিন পদ্ধতিতে নিয়োগ
এই সমঝোতাপত্রের মূল উদ্দেশ্য হল জন প্রশাসন ও প্রশাসনিক সংস্কারের ক্ষেত্রে উভয় দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে দৃঢ় করা। এর ফলে দুই দেশের বিভিন্ন দপ্তরের মধ্যে আলাপ-আলোচনা হবে। সরকারের পরিচালন ব্যবস্থাপনার উন্নতি, স্বতঃপ্রণোদিত পেনশন প্রকল্পের বাস্তবায়ন এবং সরকারি কাজে বৈদ্যুতিন পদ্ধতিতে নিয়োগের ক্ষেত্রে গাম্বিয়া ভারতের সঙ্গে একযোগে কাজ করতে আগ্রহী। এই সমঝোতাপত্রের ফলে উভয় দেশের মধ্যে সহযোগিতার পরিবেশ গড়ে উঠবে। দুটি দেশ প্রশাসনিক অভিজ্ঞতার আদান-প্রদান করবে।
প্রেক্ষাপট
ভারত সরকার দেশের বিভিন্ন সরকারি পরিষেবার মানোন্নয়ন ঘটাতে আগ্রহী। আর তাই জন প্রশাসন ও প্রশাসনিক সংস্কারের উন্নতি ঘটানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ‘ন্যূনতম সরকার সর্বোচ্চ প্রশাসন’ নীতির মাধ্যমে এই সমঝোতাপত্রটিকে বাস্তবায়িত করা হবে।

CG/CB/NS



(Release ID: 1731731) Visitor Counter : 47


Read this release in: English