বিজ্ঞানওপ্রযুক্তিমন্ত্রক

জম্মু ও কাশ্মীর এখন পশ্চিমবঙ্গের সিএসআইআর-সিএমইআরআই-এর তৈরি ওইইউ প্রযুক্তি সম্পর্কে আগ্রহ দেখাচ্ছে

কনসেনট্রেটরের মাধ্যমে অক্সিজেন থেরাপির সময় সংক্রমণ থেকে দূরে থাকার জন্য এন৯৫ বা নন ইনভেসিভ টেস্ট (এনআইভি) মাস্ক ব্যবহার একটি প্রয়োজনীয় বিকল্প : অধ্যাপক (ডঃ) হরিশ হিরানী

Posted On: 05 JUN 2021 7:03PM by PIB Kolkata

কলকাতা, ০৫ জুন, ২০২১

সমতলের অন্যান্য বেশ কয়েকটি রাজ্যের পর বণিকসভা - ফেডারেশন চেম্বার অফ ইন্ডাস্ট্রিজ কাশ্মীর (এফসিআইকে)-এর সঙ্গে এমএসএমই ডিআই, জম্মু এবং পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুর স্থিত সিএসআইআর-সিএমইআরআই-এর তৈরি অক্সিজেন সমৃদ্ধকরণ ইউনিট (ওইইউ) প্রযুক্তিটি সম্পর্কে বিশেষ আগ্রহ প্রকাশ করেছে। পার্বত্য অঞ্চলে অক্সিজেনের সঙ্কট হলে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পরা রোগীর অক্সিজেন সরবরাহে যাতে কোনো অন্তরায় না ঘটে সে ক্ষেত্রে ওইইউ বিশেষ সাহায্য করবে। শুক্রবার এমএসএমই ডিআই জম্মু, এফসিআইকে, এসআইডিবিআই সহ বেশ কয়েকটি অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পোদ্যোগ সংস্থার প্রতিনিধিরা অক্সিজেন সমৃদ্ধকরণ ইউনিট প্রযুক্তিটির বিষয়ে একটি ওয়েবিনারে যোগ দেন। এই ওয়েবিনারে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দুর্গাপুরের সিএসআইআর-সিএমইআরআই-এর অধিকর্তা অধ্যাপক (ডঃ) হরিশ হিরানী।
অধ্যাপক (ডঃ) হিরানী এই ওয়েবিনারে বক্তব্য রেখে বলেন, অক্সিজেন সমৃদ্ধকরণ ইউনিট তৈরিতে তাঁদের প্রতিষ্ঠান দেশীয় প্রযুক্তির ওপর বিশেষভাবে জোর দিয়েছে। তিনি আরও বলেন, অক্সিজেন থেরাপির জন্য এর থেকে কার্যকর আর সহজ সমাধান আর হতে পারে না। অক্সিজেন কনসেনট্রেটরের মাধ্যমে থেরাপির জন্য বিভিন্ন ধরণের মাস্ক প্রয়োগ করা হলেও সংক্রমণ থেকে বাঁচার জন্য এন৯৫ বা নন ইনভেসিভ ব্যবহার করাই সব থেকে নিরাপদ বলে তিনি মনে করেন। কারণ, রোগীর শ্বাস-প্রশ্বাস ও কাশির সময় খোলা মুখ থেকে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা প্রবল।
প্রসঙ্গত, সিএসআইআর-সিএমইআরআই-এর উন্নত দেশীয় প্রযুক্তিটি অত্যন্ত কার্যকর হিসেবে বিভিন্ন স্থানে প্রমাণিত হয়েছে। অধ্যাপক (ডঃ) হিরানীর অভিমত তাঁর প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠানের তৈরি ওইইউ আগামী দিনে বাড়িতে বাড়িতে গৃহস্থলী সামগ্রী হয়ে উঠবে। ইতিমধ্যেই এই প্রযুক্তিটি ১৩টি বাণিজ্যিক সংস্থাকে হস্তান্তর করা হয়েছে। তারা ক্রমান্বয়ে এই পণ্য বাজারে নিয়ে আসবে।
জম্মু এমএসএমই ডিআই-এর সহকারী অধিকর্তা শেখ সাহিল আল্লাকবন্দ দেশীয় প্রযুক্তির বিকাশ এবং সমাজের সকল স্তরে সচেতনতা বৃ্দ্ধির প্রয়াসে সিএসআইআর-সিএমইআরআই-এর প্রচেষ্টার উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন। তাঁর অভিমত, সিএসআইআর-সিএমইআরআই-এর এই প্রযুক্তি আগামী দিনে জম্মু-কাশ্মীরের মানুষের মধ্যে যথেষ্ট উৎসাহ ফেলে দেবে। তিনি অধ্যাপক (ডঃ) হিরানীকে আগামী দিনে চিকিৎসক সম্প্রদায় আয়োজিত অনুরূপ অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার অনুরোধ-ও জানান।
জম্মু ও কাশ্মীরের এমএসএমই বিভাগের উপ মহানির্দেশক ডঃ অশ্বিনী কুমার জানান, এই ওয়েবিনার অত্যন্ত ফলপ্রসূ হয়েছে এই কারণে যে পাব্যত্য জম্মু ও কাশ্মীরে অক্সিজেন সিলিন্ডার না পাওয়া গেলেও ওইইউ যন্ত্রটি অক্সিজেন চাহিদা সম্পন্ন রোগীকে যথেষ্ট সাহায্য করবে। জম্মু ও কাশ্মীরের এসআইডিবিআই-এর দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক শ্রী সঞ্জীত ভার্মা অতিমারী সংক্রমণ রোধে এসএইচডব্লুউএএস এবং এআরওজি প্রকল্পের আওতায় আর্থিক সহায়তা দানের বিষয়টি ব্যাখ্যা করে বলেন, যে কোনো স্বাস্থ্য সামগ্রী এবং ওষুধপত্র তৈরির ক্ষেত্রে এমএসএমই উদ্যোগগুলি যাতে এগিয়ে আসা তার জন্য আর্থিক সহায়তা এই সংস্থার কাছ থেকে অবশ্যই নেওয়া নেওয়া যাবে।

SSS/SS/SKD



(Release ID: 1724758) Visitor Counter : 101