সারওরসায়নমন্ত্রক

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের মোকাবিলায় দেশে ওষুধের অভাব নেই : শ্রী সদানন্দ গৌড়া

Posted On: 05 MAR 2020 10:29PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ০৫ মার্চ, ২০২০

 

 

কেন্দ্রীয় সার ও রসায়ন মন্ত্রী শ্রী ভি সদানন্দ গৌড়া বলেছেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণের মোকাবিলায় দেশে ওষুধের অভাব নেই।

গুজরাটের গান্ধীনগরে আজ ইন্ডিয়া ফার্মা অ্যান্ড মেডিকেল ডিভাইস ২২ সম্মেলনের উদ্বোধন করে শ্রী গৌড়া আশ্বাস দিয়ে বলেন, কঠোর নজরদারি এবং নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার মাধ্যমে সরকার দেশে এই সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম হয়েছে। বিশ্ব জুড়ে এই সংক্রমণ এই ওষুধ শিল্পের সামনে বড় সমস্যা তৈরি করেছে। কিন্তু সেই সঙ্গে, এই ক্ষেত্রের জন্য একটি সুযোগ এনে দিয়েছে। তিনি বলেছেন, করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সরকার, হাসপাতালগুলি, চিকিৎসা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং ওষুধ শিল্প যে কোনও পরিস্থিতির মোকাবিলায় দৃঢ়।

শ্রী গৌড়া আরও বলেন, আমাদের ওষুধ তৈরির মূল উপকরণ আমদানি নির্ভরতা কমানোর প্রয়োজন আছে। সেই জন্য ভারতকে এই উপকরণ তৈরিতে স্বনির্ভর হতে হবে। তিনি বলেন, ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলিকে এই পরিস্থিতি থেকে শিক্ষা নিয়ে মূল উপকরণগুলির উৎপাদন ক্ষমতা বাড়াতে পদক্ষেপ নিতে হবে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, ওষুধ শিল্পের সম্ভাবনা প্রচুর। জনসংখ্যা বৃদ্ধি, সমৃদ্ধি এবং স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধি ওষুধ শিল্প ক্ষেত্রে লগ্নি টানতে উৎসাহ দেয়। এই সুযোগ যদি ঠিক মতো নেওয়া যায়, তা হলে ২০২৫ সালের মধ্যে ভারতের ওষুধ শিল্পের বাজার ১০ হাজার কোটি ডলার ছাড়াতে পারে। পাশাপাশি, চিকিৎসা সরঞ্জাম শিল্প ২০২৫ – এর মধ্যে পৌঁছতে পারে ৫ হাজার কোটি ডলারে। সরকার ড্রাগ পার্ক এবং মেডিকেল ডিভাইস পার্কের উন্নয়নে কর্মসূচি গ্রহণ করেছে, যাতে কেন্দ্রীয় সরকার অনুদান হিসাবে বিশাল অঙ্কের টাকা দেবে রাজ্য সরকারগুলিকে। এর থেকে এই পার্কে কমন ফেসিলিটি সেন্টার তৈরি হবে। গুজরাট, অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলেঙ্গানা, তামিলনাডু এবং হিমাচল প্রদেশের মতো রাজ্যগুলির দেওয়া বেশ কিছু প্রস্তাব দপ্তরের বিবেচনাধীন।

উন্নয়নশীল দেশে যেখানে জনগণের একটা বড় অংশ দরিদ্র এবং যেখানে আয়ের পাশাপাশি চিকিৎসা খরচ বেশ বেশি, সেখানে সমাজের প্রধান উদ্বেগের বিষয় ওষুধের প্রাপ্যতা। তবে, সন্দেহের কারণ নেই যে, দেশের ওষুধ শিল্প এই বিষয়টিতে নজর দিয়ে উৎপাদন করছে এবং দেশে ও বিদেশে সরবরাহ করছে। তবে এখনও এই বিষয়ে অনেক কিছু করার আছে।

শ্রী গৌড়া বলেন, সঠিক গুণমানসম্পন্ন জেনেরিক ওষুধ যাতে সহজে পাওয়া যায়, তার জন্য ভারত সরকার প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর ভাবনা মতো প্রধানমন্ত্রী ভারতীয় জনঔষধি পরিযোজনা রূপায়ণ করছে, যাতে সাধারণ মানুষ, বিশেষ করে দরিদ্র ও পিছিয়ে পড়া মানুষ সুলভে সহজে ওষুধ পান। জেনেরিক ওষুধগুলি নির্দিষ্ট জনঔষধি দোকানে অন্তত ৫০ শতাংশ কম দামে আবার কোনও কোনও ক্ষেত্রে ৯০ শতাংশের কম দামে বিক্রি হয়। এতে মানুষের মধ্যে সাড়া পড়েছে উল্লেখযোগ্যভাবে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ওষুধ কোম্পানিগুলিকে গবেষণার ওপর জোর দিতে বলেন এবং নতুন নতুন ওষুধ কম দামে বাজারে ছাড়তে বলেন।

 

 

SDG/AP/SB



(Release ID: 1605481) Visitor Counter : 24


Read this release in: English