কেন্দ্রীয়মন্ত্রিসভা

চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ পদ তৈরিতে মন্ত্রিসভার সায়

Posted On: 26 DEC 2019 10:18PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ 

 

 

দেশে প্রতিরক্ষা পরিচালনগত ব্যবস্থায় সর্বোচ্চ পর্যায়ে গুরুত্বপূর্ণ সংস্কারের লক্ষ্যে এক ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তের অঙ্গ হিসাবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ পদ তৈরিতে অনুমোদন দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর পৌরহিত্যে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়। ফোর স্টার জেনারেল পদে চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ পদ তৈরির প্রস্তাব রয়েছে, za বর্তমান সেনা প্রধানের বেতনক্রম ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধার মতোই হবে। চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের অধীনে গড়ে উঠতে চলা সামরিক বিষয়ক দপ্তরের প্রধান হবেন এবং দপ্তরের সচিবের দায়িত্বও পালন করবেন।

চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের মাধ্যমে সামরিক বিষয়ক দপ্তর যে সমস্ত বিষয় দেখভাল করবে, তার মধ্যে রয়েছে – সেনাবাহিনী, নৌ-বাহিনী এবং বিমানবাহিনীর কাজকর্ম পরিচালনা। সেনা সদর দপ্তর, নৌ-সেনা সদর দপ্তর, বায়ুসেনা সদর দপ্তর মিলে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের এক সুসংবদ্ধ সদর দপ্তর গড়ে উঠবে। মূলধন যোগাড় বাদ দিয়ে বাহিনীর তিন শাখার যাবতীয় প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম সংগ্রহ প্রক্রিয়ার দায়িত্বে থাকবেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ। এছাড়াও, সামরিক বিষয়ক দপ্তর দ্রুত প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম সংগ্রহ, তিন শাখার প্রয়োজন অনুযায়ী কর্মী নিয়োগ ও তাঁদের প্রশিক্ষণ, সম্পদের পূর্ণ সদ্ব্যবহার ঘটিয়ে সেনা কমান্ডগুলির পুনর্গঠন প্রক্রিয়া সরল করা সহ বাহিনীর তিন শাখাতেই সম্পূর্ণ দেশজ প্রযুক্তিতে তৈরি সাজসরঞ্জাম ও অস্ত্রশস্ত্রের ব্যবহার বাড়ানোর মতো ক্ষেত্রেও দায়িত্ব পালন করবে।

সামরিক বিষয়ক দপ্তরের প্রধান পদে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি, চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ বাহিনীর তিন শাখার চিফ অফ স্টাফ কমিটির স্থায়ী চেয়ারম্যান পদেও দায়িত্ব পালন করবে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর মুখ্য সামরিক উপদেষ্টা পদও তিনি সামলাবেন। অবশ্য, বাহিনীর তিন শাখার প্রধানরা প্রতিরক্ষা মন্ত্রীকে নিজেদের শাখার বিষয়েই কেবল অবগত করবেন। এমনকি, বাহিনীর তিন শাখার প্রধানদের কোনও রকম আদেশ বা নির্দেশ দেওয়ার অধিকার চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের থাকছে না।

বাহিনীর তিন শাখার চিফ অফ স্টাফ কমিটির স্থায়ী চেয়ারম্যান হিসাবে চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ সেনাবাহিনী, নৌ-বাহিনী ও বিমানবাহিনীর সাংগঠনিক কাজকর্ম দেখভাল করবে। বাহিনীর এই তিন শাখার নিরাপত্তা ও মহাকাশ সম্পর্কিত সংস্থা বা প্রতিষ্ঠানগুলির কাজকর্ম চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের অধীনে পরিচালিত হবে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর পৌরহিত্যে গঠিত প্রতিরক্ষা সংগ্রহ পর্ষদের এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার পৌরহিত্যে গঠিত প্রতিরক্ষা পরিকল্পনা কমিটির সদস্য হিসাবেও চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ থাকবেন। নিউক্লিয়ার কমান্ড অথরিটির সামরিক উপদেষ্টা পদেও চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ কাজ করবেন। অযৌক্তিক খরচ কমিয়ে সেনাবাহিনীগুলির অভিযান পরিচালনাগত ক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বাহিনীর তিন শাখার কাজকর্মে সংস্কারমূলক পদক্ষেপ গ্রহণের ক্ষমতাও চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের এক্তিয়ারে থাকছে।

প্রতিরক্ষা পরিচালনার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ পর্যায়ে এই সংস্কারমূলক পদক্ষেপের দরুণ প্রতিরক্ষা পরিচালন প্রণালী ও পরামর্শগত ক্ষেত্রে বাহিনীর তিন শাখার মধ্যে সমন্বয় আরও বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। এর ফলে, বাহিনীর তিন শাখার মধ্যে যুগ্মভাবে অভিযান পরিচালনাগত সমন্বয় সুদূরপ্রসারী হবে। এমনকি, চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ হিসাবে বাহিনীর তিন শাখায় সর্বোচ্চ পর্যায়ে আসীন থাকার দরুণ বাহিনীর কর্মীদের মধ্যে প্রশিক্ষণ, অভিযান পরিচালনাগত প্রক্রিয়া সহ অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম সংগ্রহের মতো বিষয়গুলিতে সমন্বয় বৃদ্ধির পাওয়ার ফলে বৃহত্তরভাবে দেশবাসী লাভবান হবেন।

 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1597763) Visitor Counter : 194


Read this release in: English